সম্ভবত নির্বাচনকালীন সরকারের কোনো পরিবর্তন আসছে না

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, ‘ডিসেম্বরেই জাতীয় নির্বাচন হবে। কেউ বাধা দিতে চাইলেও সফল হবেনা। আন্দোলনের নামে যে কোনো ধরনের নৈরাজ্য প্রতিহত করবে সরকার।’

রোববার সচিবালয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাধারণ বীমা কর্পোরেশন কতৃক লভ্যাংশ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমানে দেশে যে পরিস্থিতি বিরাজ করছে তাতে উদ্বেগের কোনো কারণ নেই। রাজনৈতিক কারণে অর্থনীতি আক্রান্ত হবে না।

যদি কেউ এই পরিবেশ অস্থিতিশীল করতে চায় তবে তা যে কোনোভাবে নিয়ন্ত্রণ করবে সরকার।’

তিনি বলেন, আসন্ন নির্বাচনে বিএনপিসহ সব দল অংশ নেবে। বিএনপি না আসলে দল হিসেবে অস্তিত্ব হারাবে।

‘সম্ভবত নির্বাচনকালীন সরকারের কোনো পরিবর্তন আসছে না’ বলেও জানান আবুল মাল আবদুল মুহিত।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী নিজেও আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে মন্ত্রিসভার আকারে বড় কোনো পরিবর্তন নাও আনা হতে পারে বলে ইংগিত দেন।

২২ অক্টোবর গণভবনে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “বর্তমান মন্ত্রিসভায় ‘সব দলের’ প্রতিনিধিই আছেন।
আর নির্বাচনকালীন সরকারের আকার ছোট করা হলে উন্নয়ন প্রকল্পের বাস্তবায়ন বাধাগ্রস্ত হতে পারে।”

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতারা বলে আসছিলেন, ২০১৩ সালের মতো এবারও ভোটের আগে ‘ছোট পরিসরের নির্বাচনকালীন’ মন্ত্রিসভা গঠন করা হবে।

চলতি বছরের শুরুতে জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নিজেও এমন আভাস দিয়েছিলেন।

loading...

নামাজের সময়সুচী

ফজর ভোর ০৪:৩৬ মিনিট
যোহর বেলা ১১:৫৩ মিনিট
আছর বিকেল ০৪:১১ মিনিট
মাগরীব সন্ধ্যা ০৫:৫৪ মিনিট
এশা রাত ০৭:০৯ মিনিট
সেহরী ভোর
ইফতার সন্ধ্যা

আর্কাইভ

নির্বাচিত সংবাদ