কমলগঞ্জ নতুন বই নিয়ে আনন্দ উল্লাস

কমলগঞ্জ নতুন বই নিয়ে আনন্দ উল্লাস

Generic placeholder image
  Ashfak

শীত মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নেমেছে মৌলভীবাজারে কমলগঞ্জে। শীতে কাবু জনজীবন। নতুন বছরের শুরুতেই বেশি শীত অনুভূত হচ্ছে এখানে। এর মধ্যেই বছরের প্রথম দিন হয়েছে পাঠ্যপুস্তক উৎসব। শীতের কারণে অনেকেই আসতে পারেনি স্কুলে,নিতে পারেনি উৎসবের প্রথম দিনের বই। এতে করে কেউ হতাশ হয়নি। শীত কিছুটা কমায়,সাথে রোধের দেখা মিলায় ছাত্র ছাত্রী আনন্দ উল্লাস করতে আজ ঝড়ো হয়েছেন স্কুল প্রঙ্গনে।
বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারী) সকাল ১০টায় দেখা যায় উপজেলার কমলগঞ্জের আদমপুর ইউনিয়নের চনগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্র ছাত্রীদের মুখে রাজ্যের হাসি,যেন বসেছে উল্লাসের হাট। মাথার উপড়ে বই তুলে রেখে আনন্দ করছে ছাত্রছাত্রীরা। অভিবাবকরা তুলছেন নিজের মতো করে বাচ্চাদের ছবি। ছড়িয়ে দিচ্ছেন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যেমে। শিশুদের এ কলরবে যোগ দেন অভিভাবক ও শিক্ষকরাও।
পহেলা জানুয়ারী স্কুলে এসে বই নিতে পারেনি অনেকেই,ছিল তখন খনখনে শীত। বৃহস্পতিবার শীত উপেক্ষা করেই সকাল ১০টার দিকে বাবাকে সঙ্গে নিয়ে বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়েছিল চনগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর ছাত্র রিফাত হাসান। সে জানায়, নতুন বই নিতে অভিভাবকদের সঙ্গে আনতে বলেছিলেন শিক্ষকরা। তাই বাবাকে সঙ্গে নিয়ে নতুন বই নিতে এসেছে। নতুন বই পাওয়ার পর রিফাতে অনুভূতি জানতে চাইলে সে বলে, ‘নতুন বছরে নতুন ক্লাসে নতুন বই পেয়ে সত্যিই খুব ভালো লাগছে। আজকে থেকেই নতুন ক্লাসের বই পড়া শুরু করে দিব। পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করতে হবে।’ তার মতো মনি,মালা,সুমনা,কাকলী সহ অনেক খুদে শিক্ষার্থীই সকাল সকাল তাদের অভিভাবকদের সঙ্গে নিয়ে বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়েছিল নতুন বই নেওয়ার জন্য।
 ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্র মাহি বলেন, ‘৩য় শ্রেণীতে আমার রোল ছিল ৯৭ আর এবার ৪র্থ শ্রেণীতে হয়েছে ৬। এবারও মন দিয়ে পড়াশোনা করবো যাতে পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করে ৫ম শ্রেণীতে আমার রোল ১ হয়।’
চনগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কুঞ্জ রানী সিনহা জানান,‘বছরের প্রথম দিন আমরা ছাত্র ছাত্রীদের হাতে বই তুলে দিয়েছি। কিন্তু জেলার সবচেয়ে বেশিঠান্ডা যেন কমলগঞ্জে। তাই বছরের প্রথমদিন সকল ছাত্র আসতে পারেনি। আজ সব ছাত্র এক হয়েছে,আনন্দ করছে,খুব ভালো লাগছে। তারা তাদের মতো করে ছবিও তুলছে। তাদের মধ্যে অভিবাবকরাও আসছেন। সবার মুখে হাসি দেখছি। খুব ভালো লাগছে।’
উল্লেখ্য,বছরের প্রথম দিনে বিনামূল্যে নতুন বই পেয়ে আনন্দে উচ্ছ্বসিত সারাদেশের প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। গত ১জানুয়ারী রবিবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকেই সারাদেশে বই উৎসব পালন করা হয়।আর বই উৎসবে শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছিল বিদ্যালয়গুলো। নতুন বই হাতে পেয়েই শিক্ষার্থীরা আনন্দ-উল্লাসে মেতে উঠে। মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার বেশ কয়েকটি বিদ্যালয় ঘুরে দেখা যায়, নতুন বই হাতে পেয়েই শিক্ষার্থীদের কেউ কেউ বইয়ের পাতা উল্টে-পাল্টে দেখতে শুরু করে। আবার অনেককে নতুন বইয়ের ঘ্রাণও নিতে দেখা যায়।
এম এ ওয়াহিদ রুলু, কমলগঞ্জ 

মন্তব্য করুন হিসাবে:

মন্তব্য করুন (0)