১০ টাকার লোভ দেখিয়ে শিশুকে ধর্ষণ

Rape the baby

রাজশাহীর দুর্গাপুর পৌর এলাকার গোড়খাই গ্রামে ১০ টাকার লোভ দেখিয়ে (৭) বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই ঘটনায় অভিযুক্ত শহিদুল ইসলাম শহিদকে (৪০) গ্রেফতার করেছে থানার পুলিশ।

তিনি দুর্গাপুর পৌর এলাকার গোড়খাই গ্রামের আনছার আলীর পুত্র। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে ওই ঘটনার পর শনিবার ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার অভিযোগে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে দুর্গাপুর পৌর এলাকার গোড়খাই গ্রামের এক জনৈক ব্যক্তির মেয়েসহ ২-৩ জন শিশু বাড়ির বাহিরে খেলা করছিল। এ সময় প্রতিবেশী শহিদুল ইসলাম ওই শিশুটিকে একা বাড়ির ভিতরে ডেকে আনেন।

এরপর শহিদুল ওই শিশুকে ট্যাপ থেকে বদনায় করে পানি এনে দিলে তাকে ১০ টাকা দিবে বলে লোভ দেখায়। পরে ওই শিশু ট্যাপ থেকে বদনায় করে তার জন্য ঘরের ভিতরে পানি নিয়ে যায়।

আরও পড়ুনঃ এবার বিমানবন্দর এলাকায় কিশোরীকে গণধর্ষণ

এ সময় শহিদুল জোরপূর্বক ওই শিশুকে মুখ চেপে জ্যাপটে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করে। ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে শিশুটি চিৎকার দিতে থাকলে শহিদুল তাকে ছেড়ে দেয়। পরে শিশু ঘটনাটি তার মাকে গিয়ে বলে।

এ বিষয়ে দুর্গাপুর থানা অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) তদন্ত মাহমুদুল হাসান জানান, ওই ঘটনায় ভিকটিমের বাবা থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার পর অভিযুক্ত শহিদুলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভিকটিমকে উদ্ধার করে আলামত রিপোর্টের জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap