হঠাৎ বাদ পড়লেন মুস্তাফিজ!

mustafiz

বাংলাদেশ–ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট শুরু হচ্ছে আজ।চট্টগ্রামের দুঃস্মৃতি আর মনে করতে চান না বাংলাদেশ টেস্ট দলের অধিনায়ক মুমিনুল হক। সাগরিকায় তীরে এসে তরী ডোবায় বুকের ভিতর যে আগুন জ্বলছে, সেই আগুনেই সিরিজের শেষ অর্থাৎ ঢাকা টেস্টে ক্যারিবীয়দের পুড়িয়ে মারতে চান তিনি।

আজ বৃহস্পতিবার মিরপুরে শুরু হয়েছে সিরিজের শেষ টেস্ট। হারলে কিংবা ড্র হলেও সিরিজ হাতছাড়া। তাই জয়ের জন্য ক্ষুধার্ত হয়েই মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে উইন্ডিজের মুখোমুখি বাংলাদেশ দল।

এই টেস্টে বাংলাদেশ একাদশে ৩ টি পরিবর্তন এসেছে। সাকিব আল হাসান ও সাদমান ইসলামের ইনজুরিতে সৌম্য সরকার ও মোহাম্মদ মিঠুন জায়গা পেয়েছেন। আর পেসার মুস্তাফিজুর রহমানের পরিবর্তে আবু জায়েদ রাহির সুযোগ হয়েছে। আর উইন্ডিজ দলে একটি পরিবর্তন হয়েছে। পেসার কেমার রোচের পরিবর্তে আলজারি জোসেফ খেলছেন।

মিরপুর টেস্ট থেকে বর্তমানে বাংলাদেশ দলের সেরা পেসার মুস্তাফিজুর রহমানকেও বাদ দেওয়ায় অবাক হয়েছেন অনেকেই । টিম ম্যানেজমেন্টের এই সিদ্ধান্তের পেছনের যুক্তি খুঁজছেন তারা। তার স্থলে দলে জায়গা করে দেওয়া হয়েছে সাম্প্রতিক সময়ে সফল পেসার আবু জায়েদ রাহি।

অভিজ্ঞ মুস্তাফিজের জায়গায় তরুণ রাহিকে সুযোগ দেওয়া কতটা যৌক্তিক হলো সেটি জানতে অপেক্ষা করতে হবে।

ম্যাচ শুরুর আগের দিন গতকাল বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারী) পেসারদের বাড়তি গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলেছিলেন বাংলাদেশ দলের টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক। বাংলাদেশ অধিনায়ক মূল একাদশে ২ জন পেসারের আভাস দিলেও স্বাগতিকরা খেলছেন এক পেসার নিয়েই।

আর পড়ুনঃ শুধু সাকিব নন, বাদ পড়ে গেলেন সাদমানও

গত টেস্টের মতো এই টেস্টেও ক্যারিবীয়াদের স্পিনের ফাঁদে ফেলার কৌশল সামনে রেখে একাদশ সাজানো হয়েছে। একাদশে রাখা হয়েছে তিন স্পিনার মিরাজ, তাইজুল ও নাঈমকে।