স্বামীর কথায় প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছে কিশোরী প্রেমিকা

the teenage lover has taken a position in her boyfriend

টাঙ্গাইলের সখীপুরে প্রেমের টানে স্বামীর সংসার ছেড়ে প্রেমিকের বাড়িতে ৪ দিন ধরে অবস্থান নিয়েছে এক কিশোরী। এদিকে ঘটনার পরের দিন শফিকুল ইসলাম সোনা মিয়ার ছেলে প্রেমিক জাহাঙ্গীর আলম লাপাত্তা হয়ে গেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার দাড়িয়াপুর ইউনিয়নের আকন্দপাড়ায়।

স্থানীয়রা জানায়, আকন্দপাড়ার প্রতিবেশী ছেলে এবং মেয়ে একই ক্লাসে পড়তো। সেই থেকেই তাদের মেলামেশা এবং পরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। মেয়েটির অন্যত্র বিয়ে হলেও তাদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সম্পর্ক থেকেই যায়। গেলো ৮ দিন আগে তাদের সম্পর্কের কথা স্বামী জানতে পারে।

পরে স্বামী প্রশ্ন করলে ওই কিশোরী জানায়, স্বামী হিসেবে সে প্রেমিক জাহাঙ্গীরকেই মনে প্রাণে চায়। পড়ে তার স্বামী বলেন, তাহলে তুমি জাহাঙ্গীরের সঙ্গে চলে যাও।

স্বামীর চাপে মেয়েটি আর কোনও উপায় না পেয়ে ৪ দিন আগে গেলো বৃহস্পতিবার ছেলের বাড়িতে গিয়ে অবস্থান নেয়। পরে মেয়ের পরিবার খবর পেয়ে এলাকার চেয়ারম্যান ও মেম্বারকে জানায়।

সালিশি বৈঠকে বিষয়টি প্রেমিক যুগলের বিয়ে দেয়ার শর্তে মীমাংসা করা হলেও পরদিন ছেলের পরিবার মীমাংসা না মেনে ছেলেকে অন্যত্র পাঠিয়ে দেয়।

আরও পড়ুনঃ ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে ভাবিকে দীর্ঘদিন ধর্ষণ

তারপর থেকেই মেয়েটি ছেলের বাড়িতে অবস্থান নিয়ে আছে। এদিকে জাহাঙ্গীরের পরিবারের দাবি ছেলের বয়স কম ও মেয়ের বয়স বেশি। যে কারণে বিয়েতে রাজি না হয়ে ছেলেকে অন্যত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন তারা।