স্কুল ছাত্রীকে ৩ বন্ধু মিলে রাতভর ধর্ষণ

Overnight rape of a friend of the school student

ভালোবাসা দিবসে সপ্তম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে নিয়ে সারাদিন ঘুরে বেড়ানোর পর তিন বন্ধু মিলে রাতভর ধর্ষণ করার ঘটনা ঘটেছে খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার চন্দনীমহল এলাকায়।

এ ঘটনায় পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করলেও ধর্ষণের দৃশ্য ভিডিও ধারণকারীকে আড়াল করার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। একই সঙ্গে ধর্ষণের ভিডিও গায়েব করে দেয়া হয়েছে বলেও সূত্র জানিয়েছে।

মেয়েটিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

একাধিক সূত্র জানায়, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি দৌলতপুরে ফুপুর বাড়ি থেকে সপ্তম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে নিয়ে ঘুরতে বের হয় চন্দনীমহল এলাকার শাহিন (২৬) ও তার বন্ধু কাজল ও তাজুল মল্লিক।

রাতে বিভিন্নস্থানে ঘুরে বেড়ানোর পর শাহিন ও তার বন্ধুরা চন্দনীমহল এলাকায় জনৈক শরিফুলের বাড়িতে নিয়ে মেয়েটিকে রাতভর ধর্ষণ করে। শনিবার তাকে কাটাবন এলাকায় ফেলে দিয়ে যায়। সেখান থেকে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে।

রাতভর ধর্ষণের সেই দৃশ্য ভিডিও ধারণ করে শরিফুল। সেই ভিডিও দিয়ে মেয়েটিকে সে ফাঁদে ফেলার চেষ্টা করে।

এ বিষয়ে গতকাল সোমবার বিকেলে মামলা হয়েছে। মামলায় শাহিন, কাজল ও তাজুলের নাম থাকলেও রহস্যজনকভাবে শরিফুলের নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি।

আরও পড়ুনঃ ঘরে ঢুকে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ

এ বিষয়ে দিঘলিয়া থানা পুলিশের ভারাপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মঞ্জুর মোর্শেদ বলেন, তিনজনকে আসামি করে মামলা দায়ের হয়েছে।

 

শাহিন নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে শরিফুলের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি প্রথমে এড়িয়ে যাবার চেষ্টা করেন। পরে বলেন, তদন্তে দেখা যাবে কে কে জড়িত রয়েছে।

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap