সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ করল দশম শ্রেণির ছাত্র

A seventh grader was raped by a tenth grader

লক্ষ্মীপুর রায়পুরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে (১৩) একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় দশম শ্রেণির ছাত্র আশরাফুল ইসলাম তামিমকে (১৬) আটক করেছে পুলিশ।

তামিমকে তার বাড়ি থেকে আটক করা হয়। তারা উভয়ে স্থানীয় একটি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। তামিম দক্ষিণ চরবংশি ইউনিয়নের চরকাছিয়া গ্রামের মাঝি বাড়ির পল্লী চিকিৎসক মো. সেলিমের ছেলে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৩ বছর ধরে কিশোরীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে ওই কিশোর। বিয়ের প্রলোভন দিয়ে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে কিশোরীর সাথে দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলা হয়।

বিয়ের জন্য চাপ সৃষ্টি করলে কিশোর অস্বীকৃতি জানায়। কোনো উপায় না পেয়ে ওই কিশোরী রায়পুর থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

অভিযুক্তের বাবা মো. সেলিম ও মামা জয়নাল জানান, কোনো ধর্ষণের ঘটনা ঘটেনি। মেয়েটিকে বিয়ে করার জন্য তার পরিবার পরিকল্পিতভাবে ঘটনা সাজিয়ে কিশোর তামিমের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে।

আরও পড়ুনঃ ফাঁদে ফেলে ২ জা-কে একেক সময় একেক জায়গায় নিয়ে ধর্ষণ

রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল জলিল বলেন, কিশোর তামিমের সামনে কিশোরী জবানবন্দী দিয়েছে। তার ভিত্তিতে ধর্ষণ মামলা রেকর্ড হয়েছে। শনিবার সদর হাসপাতালে মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষা শেষে উভয়কে আদালতে পাঠানো হবে।