সকল রক্তদাতাদের এই সম্পর্কে একটু জেনে রাখা উচিত

Goshrabloodbank dumuriakhulna

অনেকের রক্ত দেওয়ার পর কারও হাতে এমন লাল বা কালচে রং এর দাগ দেখা দেয়, এতে অনেকে ভয় পেয়ে যায়।  তবে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। এটা কোন সমস্যা নয়। ২/৩ দিনের মধ্যে কিংবা সপ্তাহের মধ্যে আপনা আপনিই সেরে যাবে এটা। এখন বলি এটা কেন হয়।

কয়েকটা কারণ হয়ে থাকে

এটা অপ্রত্যাশিত । যখন পিক করা হয় তখন যদি ভেইন থেকে ব্লাড সাবকিউটেনিয়াস এ ঢুকে যায় তখন এভাবে ব্লাড টা ছড়িয়ে যায় স্কিনের ভিতরে বা যখন নিডল টা বের করে তখনও এরকম হতে পারে।

তবে এটা দক্ষতা অদক্ষতার কিছু না। শতকরা ৪/৫ জনে এরকম হয়ে থাকে মাঝে মাঝে। ভয়ের কিছু নেই। ব্লাড টা ভিতরে জমাট বেধে আছে এভাবে। আস্তে আস্তে ঠিক হয়ে যাবে। কিছুদিন সময় লাগবে শুধুমাত্র।

আরো কিছু জানতে আগ্রহী এই ব্যাপারে তাহলে কারন হচ্ছেঃ

১। আপনার এলার্জি থাকলে অনেকক্ষন টর্নিকুয়েট ( রক্ত দেয়ার সময় যে টিউব বা ফিতা দিয়ে হাত বাধা হয়) থাকার জন্য র্যাশ হতে পারে।

২। যে ব্যক্তি ব্লাড ড্র করছিল সে নিডল বের করার সময় ভুল করে কয়েক ফোটা রক্ত চামড়ার নিচে থেকে যেতে পারে। সেখান থেকে এমনটা হয়।

৩। নিডল খুলে নেয়ার পর অযথা ছিদ্র করা জায়গাটাতে মালিশ করলেও এমনটা দেখা যেতে পারে।

৪। এছাড়া অন্য যে কোন কারণে যদি চামড়ার নিচে রক্ত থেকে যায় তাহলেও এমন হতে পারে।

সাধারণত এমনটা দেখা যায় না। তবে যদি কেউ এমন পরিস্থিতিতে পড়েন তবে চিন্তার কিছু নেই। আপনার হাতে বা চামড়া কোন কিছুর চাপ লাগলে যেমন ২/৩ দিনে ঠিক হয়ে যায় এটাও ঠিক তেমনই।

শুধু হাতটা একটু কম নাড়াবেন। কারণ এই সময় হাত বেশি নাড়ালে অতিরিক্ত কিছু রক্ত আবার চামড়ার নিচে চলে আসতে পারে এবং আবারও একই অবস্থা দেখা যেতে পারে।

এম এম টিপু সুলতান,খুলনা প্রতিনিধি

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap