শুরু হচ্ছে বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপ,মুখোমুখি হচ্ছে সাকিব-তামিম

Beximco Dhaka and Minister Group Rajshahi Shakib-Tamim

আজ থেকে শুরু হচ্ছে বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপ। শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বেক্সিমকো ঢাকা ও মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীর মধ্যকার ম্যাচের মধ্য দিয়ে এই টুর্নামেন্ট শুরু হবে।

আজ  মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর)  প্রথম ম্যাচটি দুপুর দেড়টায় শুরু হবে এবং দিনের দ্বিতীয় ম্যাচটি সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় একই ভ্যেনুতে হবে। টুর্নামেন্টের ২৪টি ম্যাচ একই ভেন্যুতে হবে। দেশের নতুন ও একমাত্র ক্রীড়া বিষয়ক চ্যানেল টি-স্পোর্টস খেলাগুলো সরাসরি সম্প্রচার করবে।

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ-২০২০ শেষ হবে আগামী ১৮ ডিসেম্বর। লিগ পর্বের ২০ ম্যাচের পর শীর্ষ দলগুলোর মধ্যে চতুর্থ ও তৃতীয় দল একে অপরের মুখোমুখি হবে। এ ম্যাচে বিজয়ী দ্বিতীয় কোয়ালিফাই ম্যাচের খেলবে। লিগ পর্বে শীর্ষ দুটি দল কোয়ালিফাই বাছাইপর্বে একে অপরে মুখোমুখি হবে।

এ ম্যাচে বিজয়ী সরাসরি ফাইনালে চলে যাবে। অন্যদিকে, ম্যাচে হেরে যাওয়া দল দ্বিতীয় কোয়ালিফাই বিজয়ীদের মুখোমুখি হবে। এ ম্যাচে বিজয়ী ফাইনাল খেলতে পারবে।

আজ বাইশগজে ফিরছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপের প্রথম দিনে দ্বিতীয় ম্যাচে সাকিবের জেমকন খুলনা মুখোমুখি হচ্ছে ফরচুন বরিশালের।

সাকিব খুলনার অধিনায়ক নন। অনেক দিন পর ক্রিকেটে ফিরছেন। তাই কেবলমাত্র খেলার দিকেই ফোকাস করতে চান। সে কারণেই হয়তো জেমকন খুলনা নেতৃত্বের ভার দিয়েছে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের কাঁধে।

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরার পর ক্রিকেটের বাইরের খবরে বার বার শিরোপা হয়েছেন সাকিব আল হাসান। মাঠের লড়াই নামার আগেই ‘অন্য লড়াই’ করতে হয়েছে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারকে। এত কিছুর পর কি সাকিব বাইশগজে নিজেকে সঠিকভাবে মেলে ধরতে পারবেন?

অবশ্য অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের বিশ্বাস, প্রথম ম্যাচ থেকেই দেখা যাবে অন্য সাকিবকে। জেমকন খুলনা ক্যাপ্টেনের ভাষ্য, ‘আমি সবসময় একটা জিনিস বিশ্বাস করি- সাকিবের যে ক্যালিবার, যে ক্যাপাবিলিটি, আমার মনে হয় না যে ওটার কোনো প্রশ্ন থাকবে ওর অর্জন, ওর পারফরম্যান্সের ক্ষেত্রে।

আমি বিশ্বাস করি ও প্রথম ম্যাচেই নিজেকে মেলে ধরতে পারবে। ওই জড়তা আমি দেখছি না, আমার মনে হয় যে ও খুব উদগ্রীব খেলার জন্য, আর মুখিয়ে আছে ভালো খেলার ব্যাপারে।’

ক্রিকেটে ফেরার ম্যাচে সাকিব মুখোমুখি হচ্ছে বন্ধু তামিম ইকবালের। অনেক দিন পর সাকিবকে ময়দানি লড়াইয়ে দেখতে পাওয়াটা যেন তামিমের কাছে বিশেষ কিছু। ফরচুন বরিশাল ক্যাপ্টেন মনে করেন মাঠে ফিরে সাকিব নিজেকে আরও উঁচুতে নিয়ে যাবেন। তামিমের দাবি, এই দিনটি সাকিবের কাছে অনেক ‘বড় দিন’ আর দেশের ক্রিকেটে ‘গুরুত্বপূর্ণ দিন’।

তামিম বলেন, ‘আমি নিশ্চিত, ওর জন্য এটি অনেক বড় দিন। এক বছর পর মাঠে ফিরছে। ওর জন্য বড় দিন, বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ দিন। কারণ, ওর মাপের ক্রিকেটার ফিরে এসেছে। আমি নিশ্চিত ওর ভক্তরা ওকে দেখার জন্য মুখিয়ে থাকবে।’

‘যেহেতু আমার জন্য এটা একটা খেলা, আমি চেষ্টা করব যেন যত কম প্রভাব ও ফেলতে পারে। তবে দিন শেষে আমি খুশি যে ও ফিরছে। আমি নিশ্চিত, ও কালকে (আজ) থেকে আরও ভালোভাবে এগিয়ে যাবে।’

আরও পড়ুনঃ তাহলে কি সাকিব-রিয়াদের জেমকন খুলনাই সেরা দল?

সাকিবের ফেরায় উচ্ছ্বসিত মুশফিকুর রহিমও। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারকে নিয়ে মিস্টার ডিপেন্ডেবল বলেন, ‘এটা তো অবশ্যই বড় একটা বিষয় (সাকিবের ফেরা)। কেবল আমি না, আমার মনে হয় পুরো বিশ্ব ক্রিকেটই অপেক্ষা করছে। সে এক নম্বর অলরাউন্ডার, আমাদের শীর্ষ ক্রিকেটার। আশা করছি, আমাদের সঙ্গে ছাড়া যাতে অন্য সবার সঙ্গে ভালো খেলে। কোনো সমস্যা নাই।’

৫ দলের স্কোয়াড

বেক্সিমকো ঢাকার স্কোয়াড: মুশফিকুর রহিম, রুবেল হোসেন, তানজিদ হাসান তামিম, নাসুম আহমেদ, নাঈম শেখ, নাঈম হাসান, শাহাদাত হোসেন দিপু, আকবর আলী, ইয়াসির আলী রাব্বি, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান রানা, মুক্তার আলী, শফিকুল ইসলাম, আবু হায়দার রনি, পিনাক ঘোষ ও রবিউল ইসলাম রবি।

গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের স্কোয়াড: মোস্তাফিজুর রহমান, লিটন দাস, মোহাম্মদ মিঠুন, সৌম্য সরকার, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, শরিফুল ইসলাম, জিয়াউর রহমান, তাইজুল ইসলাম, শামসুর রহমান, নাহিদুল ইসলাম, মো. সৈকত আলী, মুমিনুল হক, রকিবুল হাসান, সঞ্জিত সাহা, মাহমুদুল হাসান জয় ও মেহেদী হাসান।

মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীর স্কোয়াড: মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, এসকে মাহাদী হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, নুরুল হাসান সোহান, ফরহাদ রেজা, মোহাম্মদ আশরাফুল, আরাফাত সানি, ইবাদত হোসোন, ফজলে মাহমুদ রাব্বি, রনি তালুকদার, আনিসুল ইমন, রেজাউর রহমান, জাকের আলী অনিক, রকিবুল হাসান (এসএনআর), মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ ও সানজামুল ইসলাম।

ফরচুন বরিশালের স্কোয়াড: তামিম ইকবাল খান, আফিফ হোসেন ধ্রুব, তাসকিন আহমেদ, ইরফান শুক্কুর, মেহেদী হাসান মিরাজ, আবু জায়েদ রাহি, তৌহিদ হৃদয়, তানভীর ইসলাম, সুমন খান, মোহাম্মদ সাইফ হাসান, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, মাহিদুল আকন, পারভেজ হোসেন ইমন, কামরুল ইসলাম রাব্বি, আবু সায়েম ও সোহরাওয়ার্দী শুভ।

জেমকন খুলনার স্কোয়াড: সাকিব আল হাসান, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, ইমরুল কায়েস, এনামুল হক বিজয়, আল আমিন হোসেন, হাসান মাহমুদ, শামীম পাটোয়ারি, আরিফুল হক, শফিউল ইসলাম, শুভাগত হোম, শহীদুল ইসলাম, রিশাদ হোসেন, জাকির হোসেন, নাজমুল ইসলাম অপু, সালমান হোসেন এবং জহুরুল ইসলাম অমি।