শরীরটা থাকে টানে, মনটা থাকে চড়ে : রাজিব আহমেদ পার্থ

Akash khan

শনিবার নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার চর মধুয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও সহযোগী অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে কর্মীসভা অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত কর্মীসভায় হাজার হাজার কর্মী সমাগমে, কর্মীসভা জনসভায় রুপান্তর নিয়েছে। সবাই আগামী রায়পুরা উপজেলার কান্ডারী পার্থ ভাইকে দেখার জন্য এবং তার মূল্যবান কথা শুনার জন্য মাঠে দলে দলে জয় বাংলার স্লোগান দিয়ে এগিয়ে আসেন।
সকল নেতাকর্মী রাজিব আহমেদ পার্থ ভাইকে সাদরে গ্রহণ করেন।

উক্ত কর্মীসভায় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত হোন
রায়পুরা গণমানুষের নেতা, রায়পুরা উন্নয়নের রূপকার, ছয় ছয়বারের সংসদ সদস্য, রাজি উদ্দিন আহমেদ রাজু ভাইয়ের সুযোগ্য সন্তান রাজিব আহমেদ পার্থ ( যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক, রায়পুরা উপজেলা আওয়ামীলীগ)
প্রধান বক্তার বক্তব্যে তিনি বলেন, আপনাদের এত ভালবাসা পাব কোথায় বলেন..??? এই ভালবাসা টাকা দিয়ে পাওয়া যাবে..?? এই ভালবাসা ব্রীজ দিয়ে পাওয়া যাবে..??? কখনোই না। আমাদের শরীরটা থাকে টানে কিন্তু মনটা থাকে চড়ে। আমার বাবা প্রায় সময় বলে, আওয়ামীলীগ কতটা শক্তিশালী তা দেখার জন্য চড়ে যাও। তাহলেই বুঝতে পারবে। আমি সব সময় রাজু সাহেবের সন্তান হিসেবে দোয়া করি। আবার ও ৩বছর পর নিবার্চনে রাজু সাহেব এমপি হিসেবে নিবার্চিত হোক। আমি চাই আমার বাবা এমপি ই থাকুক। আমি এমপি হওয়ার লোভে রাজনীতি করি না। কোন কিছু পাওয়ার আশায় রাজনীতি করি না। আমি যে রাজনীতি করি নিঃস্বার্থ ভাবে করি। রাজনীতি করি কারণ, আমি আওয়ামীলীগকে ভালবাসি। রাজনীতি করি কারণ, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান, উনার আদর্শকে বিশ্বাস করি/ উনার আদর্শকে ভালবাসি। বঙ্গবন্ধু’র কন্যা যে ভাবে সোনার বাংলাদেশ গড়ে তোলার চেষ্টা করতেছে, তার একজন ক্ষুদ্রতম কর্মী হিসেবে সোনার বাংলা গড়ে তোলার কাজে আমার আবদান টুকু রাখতে চাই। আমাদের উপজেলার মধ্যে ছদ্মবেশী কিছু রাজনীতিবিদ আছে। যারা রাজনীতি নামে নোংরা রাজনীতি করে, ঘুষের রাজনীতি করে।

উক্ত কর্মী সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হোন। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ রায়পুরা উপজেলা শাখার সংগ্রামী সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব মোঃ আফজাল হোসাইন। তিনি বলেন, আমি রাজু ভাইয়ের হাত ধরে রাজনীতিতে প্রবেশ করি। এত বছর যাবৎ রাজনীতি করতেছি কিন্তু রাজু ভাইয়ের ৫% গুনাবলি অর্জন করতে পারিনি। কারণ, রাজু ভাই আমার নেতা, আমার শিক্ষক। চর এলাকার ৬টি ইউনিয়ন নিয়ে রাজু নগর উপজেলা করা হবে। রাজু ভাই সকল ধরণের উন্নয়ন করতেছে। উন্নয়ন করে না, বিএনপি। মাইনউদ্দিন ভূঁইয়া সাহেব ১ কিলোমিটার রাস্তা ও করতে পারিনি। উনি এরশাদ এবং জিয়া ২জনের সাথে ই ছিলেন।

উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতি হিসেবে উপস্থিত হোন। চর মধুয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি এবং চর মধুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব আঃ ছালাম সিকদার।

উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত হোন। তাছতাহমিনা মানিক ( ভাইস-চেয়ারম্যান, রায়পুরা উপজেলা পরিষদ) মোঃ আশরাফুল হক ( চেয়ারম্যান,বাঁশগাড়ি ইউপি) নাছির উদ্দিন খান (চেয়ারম্যান , আমিরগঞ্জ ইউপি), মোঃ আনোয়ার হোসেন ( চেয়ারম্যান, রায়পুরা ইউপি)
মোঃ মাসুদ ( চেয়ারম্যান,ডৌকারচর ইউপি)
আল- আমিন, জাহিদুল হক তুহিন,
জামাল মোল্লা, কাজী এহসানুল হক লাভলু, মইনউদ্দিন আহমেদ নুর আলম ফকির
দুলাল ( সভাপতি, চর মধুয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগ), জোনাইদ খানঁ ( সাধারণ সম্পাদক, চর মধুয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগ) সহ সকল অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
আকাশ রহমান ( নরসিংদী জেলা)

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap