রিফাত হত্যাঃরেড অ্যালার্টের পর সীমান্তে আসামিদের তালিকা

বরগুনায় স্ত্রীর সামনে স্বামী রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যা মামলার আসামিদের গ্রেফতারে আগেই রেড অ্যালার্ট জারি করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

 

এছাড়াও তাদের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। এ ব্যাপারে যশোরের বেনাপোল ও শার্শাসহ দেশের বিভিন্ন সীমান্তে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

 

ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে শনিবার বিকেল থেকে এই সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করে ইমিগ্রেশন পুলিশ, থানা পুলিশ ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। পাশাপাশি আসামিদের তালিকাও পাঠানো হয়েছে।

 

জানা গেছে, বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনে সতর্কতার কারণে বহিরাগতদের ইমিগ্রেশন ভবনে প্রবেশ নিষেধ রয়েছে। পাসপোর্টের ছবির সঙ্গে যাত্রীর চেহারা ও ফিঙ্গার প্রিন্ট মিলিয়ে তবেই ভারতে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে সীমান্ত এলাকাতেই বিজিবির বাড়তি সতর্কতা দেখা গেছে। সন্দেহ হলেই বিজিবি সদস্যরা সীমান্তে বিভিন্ন প্রয়োজনে চলাচলকারীদের ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

আরও পড়ুনঃরিফাতকে কুপিয়ে হত্যাঃ মুক্তি পেল আটক সেই ৪ যুবক

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল বাশার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশের বিশেষ শাখা (এসবি) থেকে রিফাত হত্যা মামলার আসামিরা যাতে বেনাপোল ইমিগ্রেশন হয়ে ভারতে যেতে না পারে সেজন্য সতর্ক থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সতর্কতার সঙ্গে প্রতিটি পাসপোর্টযাত্রীর পাসপোর্ট মেশিনে পরীক্ষা করা হচ্ছে।

 

যশোর ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল সেলিম রেজা জানান, সীমান্ত পথে যাতে রিফাত হত্যাকারীরা কোনোভাবে ভারতে পালাতে না পারে, এজন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ তাদেরকে আসামিদের তথ্য পাঠিয়েছে। বিজিবি সদস্যরা সতর্ক অবস্থায় আছে। সীমান্ত পথে পালাতে গেলেই তারা ধরা পড়বে।

 

এদিকে রিফাত শরীফের খুনিরা এখনো গ্রেফতার হয়নি। প্রভাবশালীদের ছত্রচ্ছায়ায় তারা রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। পুলিশের দাবি, তারা চেষ্টা চালাচ্ছে গ্রেফতারে।

 

অন্যদিকে চার দিনেও গ্রেফতার না হওয়ায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ এবং বিক্ষোভ মিছিল করেছে সাধারণ মানুষ। তারা রিফাত  হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতারসহ সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি করেছে।

Comments
0