রাঙ্গাবালীতে ঘেরে বিষ দিয়ে মাছ চুরি, উদ্বিগ্নে মৎস্য চাষীরা

Rangabali News

পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার এক ঘেরে বিষ দেয়ার পাঁচদিনের মাথায় আরেকটি ঘেরে বিষ দিয়ে মাছ চুরির ঘটনা ঘটিয়েছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার মধ্যরাতে উপজেলার ছোটবাইশদিয়া ইউনিয়নের হরিদ্রাখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘের মালিকের দাবি, তার ৫-৬ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।
জানা গেছে, গতবছর ৪৫ শতাংশ জমির ওই ঘেরে প্রায় দুই লাখ টাকার মাছ চাষ করে স্থানীয় আবু হানিফ মেম্বার। সোমবার মধ্যরাতে সেই ঘেরে বিষ দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এই বিষক্রিয়ার প্রভাবে মঙ্গলবার সকাল থেকে ঘেরের মাছগুলো মরে ভেসে উঠলে বিষয়টি জানাজানি হয়।

ঘের মালিক আবু হানিফ মেম্বার বলেন, ‘৫-৬ লাখ টাকার রুই, কাতলা ও গলদা চিংড়ি প্রজাতির বড় মাছগুলো নিয়ে গেছে। এখন ঘেরে এসে ছোট মাছগুলো রক্ষার চেষ্টা করতেছি।’
এ ঘটনার পাঁচদিন আগে গত বুধবার মধ্যরাতে ওই ইউনিয়নের গহিনখালী গ্রামে রনি হাওলাদারের একটি মাছের ঘেরে বিষ দিয়ে পাঁচ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি করেছে দুর্বৃত্তরা।

এরআগে গত ৪ ফেব্রুয়ারি মৌডুবি ইউনিয়নের হাফেজকান্দা গ্রামে ফরিদ হাওলাদারের মৎস্য হ্যাচারিতে বিষ দিয়ে দুই লক্ষাধিক টাকার রেনুপোনা মারা হয়। এই দুইটি ঘটনায় রাঙ্গাবালী থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়।

তবে রাতের আধারে বিষ প্রয়োগের ঘটনা ঘটানোর কারণে দুর্বৃত্তদের শনাক্ত যাচ্ছে না বলে জানান মৎস্য চাষীরা। ফলে উদ্বিগ্ন তারা।
এ ব্যাপারে রাঙ্গাবালী থানার ওসি (তদন্ত) খোন্দকার মো. আবুল খায়ের বলেন, সোমবার মধ্যরাতে বিষ প্রয়োগের ঘটনায় আমরা এখনও লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অপরাধ দমনে আমরা সার্বক্ষণিক তৎপর রয়েছি।

রাঙ্গাবালী (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি,মাহমুদ হাসান