যুক্তরাষ্ট্রের বাধা ডিঙিয়ে ইরানি ট্যাংকার ফিরিয়ে দিচ্ছে ব্রিটেন

Iran says Britain might release seized Grace 1 oil tanker

সম্প্রতি ব্রিটেন ও ইরানের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। তারই জের ধরে গত মাসে ব্রিটিশ রাজকীয় নৌবাহিনীর হাতে ‘গ্রেস-১’ নামে তেহরানের যে তেলবাহী ট্যাংকারটি আটক হয়েছিল।

এ নিয়ে পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের বাধা সত্ত্বেও ট্যাংকারটি ফিরিয়ে দিচ্ছে ব্রিটেন। দু’দেশের মধ্যে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেওয়া-নেওয়ার পর এমন সিদ্ধান্ত এসেছে।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম বৃহস্পতিবার এ খবর জানিয়েছে। ব্রিটিশ ভূখণ্ডের জিব্রাল্টারের সুপ্রিম কোর্ট ‘গ্রেস-১’ কে মুক্তি দেওয়ার অনুমোদন দিয়েছেন।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তারা আর এটি আটকে রাখতে চান না। তারা এখন সন্তুষ্ট যে, ইরানি ওই তেল ট্যাংকারটি আর সিরিয়ায় যাচ্ছে না।

এর আগে জিব্রাল্টার জানিয়েছিলেন যে, তারা ইরান এবং তেল মালিকদের কাছ থেকে আশ্বাস পেয়েছিল যে ট্যাংকারটি ছাড়া হলে তাদের মালামাল আর সিরিয়ায় নেওয়া হবে না। ফলে এতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞার লঙ্ঘন হবে না।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে সিরিয়ায় তেল পাচারের সন্দেহে ইরানি গ্রেস-১ তেলের জাহাজটি আটক ছিল ব্রিটিশ ভূখণ্ড জাবাল আল তারিক প্রণালীতে (জিব্রাল্টার)।

উল্লেখ্য, গত ০৪ জুলাই ২১ লাখ ব্যারেল তেল বহন করে নিয়ে যাওয়া গ্রেস-১ ট্যাংকারটি জিব্রাল্টার প্রণালীতে আটক করেছিল ব্রিটিশ নৌবাহিনী।

আরও পড়ুনঃকাশ্মীরিদের পক্ষে বিক্ষোভ করায় বাংলাদেশিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

পরে এর জেরে পারস্য উপসাগর থেকে ব্রিটিশ পতাকাবাহী তেল ট্যাংকার ‘স্টেনা ইমপেরো’ আটক করে ইরানের বিপ্লবী বাহিনী। তখন থেকে দু’দেশের মধ্যে কূটনৈতিক তোলপাড় সৃষ্টি হয়।