ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগে উত্তাল বিপিএলঃ আনন্দবাজার - Metronews24 ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগে উত্তাল বিপিএলঃ আনন্দবাজার - Metronews24

ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগে উত্তাল বিপিএলঃ আনন্দবাজার

BPL over allegations of match-fixing

ফের বিতর্কের ছায়া পড়েছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে। এবার একই ওভারে বিশাল ওয়াইড ও নো বল করে সেই বিতর্কের জন্ম দিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের পেসার ক্রিসমাস সান্তোকি। উঠে আসছে ম্যাচ গড়াপেটার সন্দেহও।

ঘটনার সূত্রপাত গত বুধবার বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ শুরুর দিনে। ঢাকার শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সে দিন মুখোমুখি হয়েছিল সিলেট থান্ডার ও চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।

সেই ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে সিলেট থান্ডার নির্ধারিত ২০ ওভারে করে ১৬২-৪। জবাবে এক ওভার বাকি থাকতেই পাঁচ উইকেট হারিয়ে ১৬৩ রান করে পাঁচ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় চট্টগ্রাম চ্যাসেঞ্জার্স।

দ্বিতীয় ইনিংসে চট্টগ্রাম ব্যাট করার সময় দ্বিতীয় ওভারে বল করতে এসেছিলেন জামাইকার এই বাঁ হাতি পেসার ক্রিসমার সান্তোকি। যিনি অতীতে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়েও খেলেছেন আইপিএলে।

সে মুহূর্তে ব্যাট করছিলেন আবিস্কা ফার্নান্দো। ওভার দ্য উইকেটে বল করার সময় সেই ওভারের তৃতীয় বল ফুলটস করেন সান্তোকি। ব্যাটসম্যানের লেগ সাইডের অনেক বাইরে পড়ে বল বেরিয়ে যায়। আম্পায়ার ওয়াইড ডাকেন।

ধারাভাষ্যকারদের কথায়, “টেস্টেও এটা ওয়াইড ডাকতে হবে।”

আরও পড়ুনঃ আইপিএলের চুড়ান্ত নিলামে উঠছে মুশফিক

এর দুই বল পরেই সান্তোকি সবাইকে অবাক করে একটি নো বল করেন। যেখানে তার সামনের পা পপিং ক্রিজ থেকে প্রায় এক মিটার বাইরে ছিল। টিভিতে এই বলের পরই ধারাভাষ্যকার তার সহকারীকে বলেন, “বলটা আরও একবার দেখুন। অবিশ্বাস্য।”

অপর ধারাভাষ্যকারও বলেন, “বিশ্বাসই হচ্ছে না। কীভাবে একজন বোলার দাগের বাইরে এতটা এগিয়ে যেতে পারেন!”

এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঝড় তোলেন দর্শকরা। কেউ কেউ টুইট করেন, “এটা কি সত্যি?”

অন্য এক দর্শকের টুইট, “এ রকম অস্বাভাবিক ওয়াইড ও নো বল করার কারণ জানাক সান্তোকি।” সূত্র: আনন্দবাজার