মিয়ানমারকে সাবমেরিন বিধ্বংসী অত্যাধুনিক টর্পেডো দিল ভারত

India Delivers Initial Batch of Indigenously Built Torpedoes

চুক্তির দুই বছরের মধ্যেই মিয়ানমারের নিকট সাবমেরিন বিধ্বংসী অত্যাধুনিক হালকা টর্পেডো (টিএএল) ‘শেয়েনা’ হস্তান্তর করেছে ভারত।

গত শুক্রবার মিয়ানমার নৌবাহিনীর কাছে এই প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাটির প্রথম চালান হস্তান্তর করে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ।

 

মিয়ানমারে টর্পেডো রপ্তানির জন্য ২০১৭ সালে দেশটির সঙ্গে ৩৭ দশমিক ৯ মিলিয়ন ডলারের চুক্তি করেছিল ভারত।

এই চুক্তি অনুসারে টর্পেডোর প্রথম চালান মিয়ানমারে পৌঁছেছে। মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) ভারতের সামরিক এবং প্রতিরক্ষা নিউজ ওয়েবসাইটে এসব তথ্য নিশ্চিত করে।

 

ভারতের রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান ভারত ডায়নামিকস লিমিটেড (বিডিএল) এই উচ্চ প্রযুক্তির টর্পেডো বানিয়েছে।

আরও পড়ুনঃ ইরানের সাথে ভয়ঙ্কর যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে ইসরায়েল

তবে মিয়ানমারে আসা টর্পেডোর সংখ্যা এবং দেশটির নৌবাহিনীর কোন বহরে প্রযুক্তিটি যোগ হবে, সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।

এই প্রযুক্তির টর্পেডো ভারতীয় নৌবাহিনীর ২৫ ইউনিটে আছে। এর ওজন ২২০ কেজি এবং দৈর্ঘ্য দুই হাজার ৭৫০ মিলিমিটার ও ব্যাস ৩২৪ মিলিমিটার।

 

এতে উচ্চমাত্রার ৫০ কেজি পরিমাণ বিস্ফোরক ভর্তি থাকে। একইসঙ্গে এর কার্যকরী দূরত্ব সাত কিলোমিটার এবং সর্বোচ্চ গভীরতা ৫৪০ মিটার পর্যন্ত।