মার্কিন বি-৫২ বিমান ইরানের আকাশসীমায় ওড়াউড়ি করলে কঠিন জবাব

Two American B-52 bombers flew a show-of-force mission in the Persian Gulf

ইরানের আকাশসীমার ক্ষুদ্রতম লঙ্ঘনের কঠিনতম জবাব দেওয়া হবে। ইরানের খাতামুল আম্বিয়া বিমান প্রতিরক্ষা ঘাঁটির উপপ্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কাদের রাহিমজাদে শনিবার এক বক্তব্যে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

মধ্যপ্রাচ্যে মোতায়েন বহিঃশক্তিগুলোর বিমান বাহিনীর অপতৎপরতার প্রতি ইঙ্গিত করে জেনারেল রাহিমজাদে বলেন, ইরান সীমান্ত থেকে ১৫০ কিলোমিটার দূরে একটি বহিঃশক্তির পক্ষ থেকে বি-৫২ বোমারু বিমানের উড্ডয়নসহ এ অঞ্চলের আকাশের প্রতিটি গতিবিধি নখদর্পণে রেখেছে তেহরান।

মার্কিন সামরিক বাহিনী সম্প্রতি আমেরিকার লুইজিয়ানা ঘাঁটি থেকে দুটি বি-৫২ বোমারু বিমান মধ্যপ্রাচ্যের উদ্দেশ্যে পাঠিয়েছে। এরইমধ্যে বোমারু বিমান দুটি ইউরোপ হয়ে মধ্যপ্রাচ্যে প্রবেশ করেছে এবং পারস্য উপসাগরের ওপর দিয়ে ওড়াউড়ি করেছে।

জেনারেল রাহিমজাদে বলেন, প্রতি মুহূর্তে এসব বিমানের গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে এবং এগুলো ইরানের আকাশসীমায় বিন্দুমাত্র প্রবেশ করার ধৃষ্টতা দেখালে তার কঠিনতম জবাব দেওয়া হবে।

খাতামুল আম্বিয়া বিমান প্রতিরক্ষা ঘাঁটির উপপ্রধান বলেন, শুধু বিমান নয় সেইসঙ্গে বহিঃশক্তির পাইলটবিহীন বিমান বা ড্রোনগুলোর গতিবিধি এবং সেগুলোর সব ধরনের কার্যক্রম গভীর নজরদারিতে রেখেছে তার ঘাঁটি।

আরও পড়ুনঃ ইরানের সর্বোচ্চ নেতা খামেনির মৃত্যুর পর কে হচ্ছে তার উত্তরসূরি?

মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের কৌশলগত অবস্থানের গুরুত্ব এবং এদেশের ইসলামি সরকারের বিরুদ্ধে বিদ্বেষী শক্তিগুলোর শত্রুতার কথা উল্লেখ করে জেনারেল রাহিমজাদে বলেন, তার দেশের সশস্ত্র বাহিনী শত্রুর যেকোনও আগ্রাসনের দাঁতভাঙ্গা জবাব দেবে এবং এদেশের জনগণের জন্য সর্বোচ্চ শান্তি ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে।

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap