মধ্যপ্রাচ্যে যুদ্ধ শুরু হলে আরব দেশগুলো সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে

Amir Ali Hajizadeh

ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি’র এর কয়েকজন সিনিয়র কমান্ডার আমেরিকা ও ইসরায়েলের সহযোগী আরব দেশগুলোকে হুঁশিয়ার করে দিয়ে বলেছেন, মধ্যপ্রাচ্যে যেকোনও যুদ্ধ শুরু হলে এসব আরব দেশ সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

আইআরজিসি’র অ্যারোস্পেস ডিভিশনের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আমির-আলী হাজিযাদে লেবাননের আল-মানার টেলিভিশনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন। তিনি আরব দেশগুলোকে তাদের নীতি সংশোধন করার আহ্বান জানান।

হাজিযাদে বলেন, “আমেরিকা ও ইসরায়েল সরকার বিশ্বের কোথাও শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে পারেনি। এখানে (মধ্যপ্রাচ্যে) যদি কোনও ঘটনা ঘটে এবং যুদ্ধ লেগে যায় তাহলে আমরা মার্কিন ঘাঁটিগুলো এবং এসব ঘাঁটির স্বাগতিক দেশগুলোর মধ্যে কোনও পার্থক্য করব না।”

মার্কিন ড্রোন হামলায় ইরানি জেনারেল কাসেম সোলায়মানি হত্যার প্রথম বার্ষিকীকে কেন্দ্র করে ইরান ও আমেরিকার মধ্যে উত্তেজনা বেড়ে যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে এসব কথা বলেন হাজিযাদে।

আরও পড়ুনঃ মার্কিনিদের মধ্যপ্রাচ্য থেকে তাড়ানোই হবে চরম প্রতিশোধ

গত বুধবার আমেরিকার পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম দু’টি বি-৫২ বোমারু বিমান আমেরিকা থেকে আকাশে উড়ে বিরতিহীনভাবে মধ্যপ্রাচ্যের আকাশে টহল দিয়ে আবার আমেরিকায় ফিরে যায়। গত ছয় সপ্তাহে এ নিয়ে তিনবার আমেরিকা ইরান সীমান্তের কাছে এ ধরনের উসকানিমূলক তৎপরতা চালাল। এর আগে গত সপ্তাহে পরমাণু শক্তিচালিত একটি মার্কিন সাবমেরিন পারস্য উপসাগরে অনুপ্রবেশ করেছিল।