ভালোবেসে বিয়ের দুই বছরে লাশ হলেন রোকসানা

Roxana Akhter is the wife of Jasim Uddin of West Larpara area

ভালোবেসে বিয়ের দুই বছরের মাথায় স্বামীর বাড়ি থেকে লাশ হয়ে ফিরলেন রোকসানা আক্তার নামে এক গৃহবধূ। সোমবার সকাল ৯টার দিকে সদর কক্সবাজারে উপজেলার ঝিলংজা ইউনিয়নের পশ্চিম লারপাড়ায় স্বামীর বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহতের পরিবারের অভিযোগ, তাকে স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন নির্যাতন করে হত্যা করেছে।

নিহত রোকসানা আক্তার পশ্চিম লারপাড়া এলাকার জসীম উদ্দীনের স্ত্রী। দাম্পত্য জীবনে তাদের আফসান উদ্দিন শামীম নামে এক ছেলে সন্তান রয়েছে।

রোকসানার বাবা কক্সবাজার পৌরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা দুলাল মিস্ত্রি জানান, ২০১৮ সালের প্রথম দিকে জসীম উদ্দীনকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিল রোকসানা।

কিন্তু প্রথম দিকে রোকসানাকে মেনে নেয়নি জসীমের বাবা-মা। মেনে নেয়ার পর চলতি বছর তাদের একটা ছেলে সন্তান হয়।

তিনি আরও জানান, সন্তান হওয়ার পর থেকে জসীমের চারিত্রিক অধপতন শুরু হয়। সে মাদকাসক্ত হয়ে চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ী কবিরের সহযোগী হিসেবে কাজ করা শুরু করে। এতে সংসারে চরম কলহ তৈরি হয়।

কারণে-অকারণে প্রায় সময় জসীম রোকসানাকে ব্যাপক মারধর করতো। সইতে না পেরে জসিমের বিরুদ্ধে মামলা করে রোকসানা।

আরও পড়ুনঃ নায়িকা শিরিন শীলাকে নজরদারি করে আরমানের খোঁজ পায় র‌্যাব

এতে নির্যাতন আরও বাড়িয়ে দেয় জসিম। রোকসানাকে স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন পিটিয়ে হত্যা করেছে। রোকসানার শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) খায়রুজ্জামান মরদেহ উদ্ধারের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় রোকসানার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অভিযোগ সত্য হলে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap