ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে এখনও গোলাগুলি চলছে

বিতর্কিত কাশ্মীরে এখনও একে অন্যের চেকপোস্ট এবং গ্রামগুলো লক্ষ্য করে গোলাগুলি চালাচ্ছে ভারত এবং পাকিস্তানের সেনাবাহিনী। দু’দেশের সেনাবাহিনীর তরফ থেকেই জানানো হয়েছে যে, দু’পক্ষের গোলাগুলিতে এখন পর্যন্ত কমপক্ষে পাঁচ বেসামরিক এবং দুই সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছে আরও বেশ কয়েকজন।

মাত্র দু’দিন আগেই শান্তির প্রতীক হিসেবে ভারতীয় বিমান বাহিনীর পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে ফিরিয়ে দিয়েছে পাকিস্তান। প্রায় ৬০ ঘণ্টা ওই পাইলট পাক সেনাদের হাতে বন্দী ছিলেন।

কিন্তু তাকে মুক্তি দেয়ার পরও দু’দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি থামেনি। বরং পরমাণু শক্তিধর দেশ দুটি একে অন্যকে লক্ষ্য করে কামান এবং মর্টার নিক্ষেপ করছে।

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীর সীমান্তে পাক বাহিনীর গোলা বর্ষণে দুই শিশু এবং তাদের মা নিহত হয়েছেন। শুক্রবার রাতে পাকিস্তানে আটক পাইলট অভিনন্দনকে ফেরত দেয়ার ঘণ্টা কয়েক পর গভীর রাতে সীমান্তে ব্যাপক গোলা বর্ষণের ঘটনা ঘটে।

নিয়ন্ত্রণ রেখার পুঞ্চ সেক্টরে ওই শিশুদের নিয়ে বাড়িতেই ছিল তাদের মা। সে সময় বাড়ির ওপর পাকিস্তানি সেনাদের গোলাবর্ষণের আঘাতে তিনজনের মৃত্যু হয়। ওই শিশুদের বাবা গুরুতর আহত হয়েছেন। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিয়ন্ত্রণ রেখায় পাকিস্তানের ভারী গোলা বর্ষণের কারণে পুঞ্চ থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরের উরি সেক্টরে থাকা লোকজনকে নিরাপদে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

নাসরুল্লাহ খান নামে স্থানীয় হাসপাতালের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, পাক অধ্যুষিত কাশ্মীরের নাকিয়াল এলাকায় ভারতের গোলাবর্ষণে এক ব্যক্তি এবং একটি শিশু নিহত হয়েছে। তিনি আরও জানিয়েছেন, তাত্তা পানি এলাকায় এক ব্যক্তি আহত হয়েছেন।

পাক সেনাবাহিনীর তরফ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, নাকিয়াল এলাকায় তাদের দুই সেনা নিহত হয়েছে। গভীর রাতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর গোলাবর্ষণে রাওয়ালকোটে একজন আহত এবং তিনটি বাড়ি ধ্বংস হয়ে গেছে।

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap