ভারতের তৈরি নয়া মিসাইলে পাকিস্তানের কপালে চিন্তার ভাঁজ

Su-30MKI Multirole Fighter Aircraft

সম্পূর্ণ দেশীয় নকশায় তৈরি ভারতের নয়া এয়ার-টু-এয়ার ক্ষেপণাস্ত্র।

সুখোই সু-৩০ এমকেআই কমব্যাট বিমান থেকে এই ভারতীয় ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। ভারতের তৈরি নয়া এই মিসাইলের পাল্লা ৭০ কিলোমিটার পর্যন্ত।

 

বিরূপ আবহাওয়া ‘অস্ত্র’র নিশানাভেদের পথে বাধা সৃষ্টি করতে পারবে না। যে কোনও আবহাওয়াতেই এই আকাশ-টু-আকাশ মিসাইল কাজ করতে সক্ষম। দৃষ্টিগোচরের বাইরে থাকা লক্ষ্যবস্তুতে অভ্রান্ত ভাবেই আঘাত করতে পারবে ভারতের এই দেশীয় মিসাইল।

সত্তর কিলোমিটার পাল্লার এই মিসাইলটি তৈরি করেছে ভারতের ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড অর্গানাইজেশন, ডিআরডিও। ভারতের সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান গবেষণা এবং উন্নয়ন সংস্থা হল এই ডিআরডিও।

এই ‘অস্ত্র’ হল প্রথম ভারতের নকশায় তৈরি এয়ার-টু-এয়ার ক্ষেপণাস্ত্র। নির্মাণের এখন অ্যাডভান্সড স্টেজে রয়েছে।

আরও পড়ুনঃভারত মহাসাগরে সাত চীনা যুদ্ধ জাহাজ,উদ্ধিগ্ন নয়াদিল্লি

গত সোমবার বঙ্গোপসাগরের ওডিশা উপকূলে বিমান বাহিনীর সুখোই বিমান থেকে ভারতীয় মিসাইলটির প্রথম পর্যায়ের পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রালয় সূত্রে খবর, যোগ্যতা পরীক্ষায় সোমবার মিসাইলটি নির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম হয়েছে। ক্ষেপণাস্ত্রটি রাডার, বৈদ্যুতিন-অপটিক্যাল ট্র্যাকিং সেন্সর ব্যবহার করে ট্র্যাক করা হয়।

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রকের তরফে আরও জানানো হয়েছে, স্বল্প বা দীর্ঘ যে কোনও রেঞ্জেই ‘অস্ত্র’ আঘাত হানতে সক্ষম।

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap