বেপরোয়া হয়ে উঠছে করোনাভাইরাস,ভয়ঙ্কর তথ্য দিলেন বিশেষজ্ঞরা - Metronews24 বেপরোয়া হয়ে উঠছে করোনাভাইরাস,ভয়ঙ্কর তথ্য দিলেন বিশেষজ্ঞরা - Metronews24

বেপরোয়া হয়ে উঠছে করোনাভাইরাস,ভয়ঙ্কর তথ্য দিলেন বিশেষজ্ঞরা

Kazakhstan allocates additional funds to battle coronavirus spread

দিন যতই যাচ্ছে আরও বেপরোয়া হয়ে উঠছে নতুন করোনাভাইরাস। এরই মধ্যে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে ২ হাজার ৬৬৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৮০ হাজার মানুষ।

ক্রমেই বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। ইতোমধ্যে চীনের বাইরে অন্তত ৩২টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস।

এদিকে, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ সম্পর্কে নতুন তথ্য দিলেন বিশেষজ্ঞরা। এত দিন বলা হচ্ছিল, উপসর্গ না থাকলে করোনাভাইরাস ছড়ায় না। কিন্তু চীনা গবেষকরা এবার নিশ্চিত হয়েছেন যে, উপসর্গ প্রকাশ না পেলেও করোনাভাইরাস ছড়াতে পারে।

উহানের ২০ বছর বয়সি এক নারী থেকে তার পরিবারের পাঁচ সদস্যের মধ্যে ভাইরাসটি ছড়িয়েছে, কিন্তু তিনি তখনো শারীরিকভাবে অসুস্থ হননি।

এই কেস স্টাডিটি একটি শক্তিশালী প্রমাণ যে, উপসর্গবিহীন ব্যক্তি থেকেও অন্যদের মাঝে করোনাভাইরাস ছড়াতে পারে। এই বিষয়টি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব থামানোকে আরো কঠিন করে তুলেছে।

ইতোমধ্যে এই ভাইরাসটি চীনের বাইরে কিছু দেশেও উদ্বেগজনক হারে ছড়িয়ে পড়ছে, যেমন- দক্ষিণ কোরিয়া, ইতালি ও ইরানে যথাক্রমে ৭, ৫ ও ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ ভারতে ট্রাম্পের নিরাপত্তায় হনুমান মোতায়েন

এই কেসের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট গবেষকরা বলেছেন, ২০ বছর বয়সি চীনা নারীটিকে পরিবার থেকে আলাদা করে আন্যাংয়ের ফিফথ পিপল’স হসপিটালে ঘনিষ্ঠ পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছিল।

তিনি শারীরিকভাবে অসুস্থ হননি, কিন্তু তারপরও তার পরিবারের সদস্যদের জ্বর এসেছিল। তাদের মধ্যে দুজনের তীব্র নিউমোনিয়া হয়েছিল।

সাধারণ মানুষের কাছে এটা অস্বাভাবিক মনে হতে পারে যে, উপসর্গ বা অসুস্থতা ছাড়াও ভাইরাস ছড়ায়। কিন্তু গবেষকদের কাছে এটা প্রত্যাশিত, কারণ এর আগে তারা উপসর্গ দেখা যায়নি এমন লোকের ভাইরাস পরীক্ষায় পজিটিভ রেজাল্ট পেয়েছেন।

চাইনিজ সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তারা ৮ ডিসেম্বর থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত করোনাভাইরাস বিষয়ক চীনের সকল রিপোর্টড কেস বিশ্লেষণ করেছেন। দেখা গেল যে, ১.২ শতাংশ সংক্রমিত রোগীর উপসর্গ দেখা যায়নি।

উচ্চ সংখ্যক উপসর্গবিহীন কেস পাওয়া গেছে ডায়মন্ড প্রিন্সেস প্রমোদতরীতে। প্রমোদতরীটিতে ৬২১ জনের মধ্যে ৩২২ জনের টেস্টে পজিটিভ রেজাল্ট এসেছিল, কিন্তু তাদের কোনো উপসর্গ ছিল না। সূত্র: সায়েন্স অ্যালার্ট