বিয়ের প্রলোভনে স্বামী পরিত্যক্তাকে নিয়মিত ধর্ষণ

The temptation of marriage is to rape the divorced husband regularly

নাটোরে ধর্ষণের বিচার চেয়ে মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে এক অসহায় স্বামী পরিত্যক্তা নারী। সদর উপজেলার দিঘাপতিয়া ইউনিয়নের ভাতুরিয়া গ্রামের সাইফুল ইসলামের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নিয়মিত ধর্ষণের অভিযোগ করেন একই গ্রামের অসহায় এই নারী।

অসহায় নারী জানান, স্বামী পরিত্যক্ত হওয়ার পর বাপের বাড়িতে এক ছেলে নিয়ে কষ্টে দিন পার করছিলেন তিনি । ১৪ বছর ধরে মানুষের বাড়ি আর ক্ষেত খামারে কাজ করে জীবীকা নির্বাহ করেন।

তিনি আরও অভিযোগ করেন, ধর্ষণের বিষয়টি মীমাংসার জন্য বিভিন্নভাবে চাপ দেওয়া হচ্ছে। মেম্বার চেয়ারম্যান তাদের লোক বলেও অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী নারী। সাইফুল ইসলাম তাকে বিয়ে না করলে আত্মহত্যারও হুমকি দেয় ওই নারী।

স্থানীয় ইউপি সদস্য নাদিম অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, ওই নারীর স্বভাব চরিত্র ভাল। যেহেতু বিষয়টা স্পর্শকাতর, তাই পুলিশের সাহায্য নিতে বলেছি।

এদিকে অভিযুক্ত সাইফুল ইসলাম জানান, এলাকায় আসেন খোঁজ-খবর নেন। আমি এ ধরনের ঘটনায় জড়িত না ওই নারী যে অভিযোগ করেছেন তা সত্য নয়। এটা বানোয়াট।

আরও পড়ুনঃ সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ করল দশম শ্রেণির ছাত্র

অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা সদর থানার উপ-পরিদর্শক নিয়ামুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আমরা বিষয়টা ক্ষতিয়ে দেখছি।

তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়া বিষয়টি আমি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে জানিয়েছি। তিনি ব্যবস্থা নিবেন।