বিশ্বের মুসলমানেরা আমিরাতের বিশ্বাসঘাতকতা কখনোই ভুলবে না

History will not forgive UAE betrayal

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবযাদে বলেছেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ইহুদিবাদী ইসরায়েলের মধ্যে সম্পর্ক স্থাপনের চুক্তি মুসলিম বিশ্বের জন্য একটি ক্ষত এবং বিশ্বের মুসলমানেরা বায়তুল মুকাদ্দাসের সঙ্গে এই বিশ্বাসঘাতকতা কখনোই ভুলবে না। তিনি গতকাল সোমবার রাজধানী তেহরানে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর এটিই ছিল সাঈদ খাতিবযাদের প্রথম সংবাদ সম্মেলন। তিনি আরও বলেছেন, এই এলাকায় যদি দখলদার ইসরায়েল কোনো হুমকি সৃষ্টি করে তাহলে এ জন্য দায়ী থাকবে আরব আমিরাত।

তিনি বলেন, ইরানের নিরাপত্তা ও প্রতিরক্ষা নীতিতে পারস্য উপসাগরে ইসরায়েলকে হুমকি হিসেবে গণ্য করা হয় না।

ইসরায়েলের তার নিজের নিরাপত্তা নিশ্চিত করারও ক্ষমতা নেই বলে তিনি মন্তব্য করেন। ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আরও বলেছেন, দখলদার ইসরায়েল এ পর্যন্ত সব চুক্তি ও প্রতিশ্রুতি লঙ্ঘন করেছে এবং সব ধরণের হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। এসবই বাস্তবতা। এই বাস্তবতার পরিবর্তন ঘটবে না।

আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা বা আইএইএ’র মহাসচিব রাফায়েল গ্রোসি’র ইরান সফর সম্পর্কে তিনি বলেছেন, ইরান ও আইএইএ’র সম্পর্ক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

আরও পড়ুনঃ করোনায় নাইট ক্লাবে পার্টি,পুলিশের ধাওয়ায় পদদলনে নিহত ১৩

তবে গত বছরগুলোতে দুই পক্ষের সম্পর্কে চড়াই-উতরাই ছিল। আইএইএ সব সময় তৃতীয় পক্ষের রাজনৈতিক চাপ উপেক্ষা করে নিরপেক্ষ থাকলে কারিগরি কাঠামোর আওতায় দুই পক্ষের সম্পর্কে কোনো সমস্যা তৈরি হবে না।

সূত্র :পার্সটুডে।

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap