বাদামেই সচল আব্দুল হকের জীবিকার চাকা

news

জীবন তো চলবেই জীবনের মত।তবে জীবনের মান চলমান রাখতে বিভিন্ন জন বেছে নিচ্ছেন বিচিএ পেশা।কারণ জীবনের ভার বহন করতে জীবিকার প্রয়োজন সর্বাগ্রে।কেউ ছোট বেলা তো কেউ বড় হয়ে সবাইকে কোন না কোন পেশায় সম্পৃক্ত করতেই হয়।

যার যার সুবিধা মত তারা প্রতিনিয়তই জীবিকার সাথে জীবনের সন্ধি স্থাপন করছেন।আর এইজন্য জীবনের প্রয়োজনে জীবিকার সন্ধানে সবাই জীবন নামক যুদ্ধক্ষেএে যুদ্ধ করে আজীবন। এমনি সদিচ্ছা জীবন যুদ্ধের এক সফল সৈনিক আব্দুল হক।

বয়স প্রায় ৫৫ পেরিয়েছেন।শ্যামবর্ণ চেহারার হালকা -পাতলা দৈহিক গঠন।তিনি প্রায় ২৫ বছর বাদাম বিক্রি করেই জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন।তার জীবনের বেশি সময়টা কেটেছে বাদামের সাথেই।তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের হাট বাজারে বাদাম বিক্রি করেন।

আব্দুল হকের বাড়ী চাঁপাইনবাবগঞ্জ শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা খড়িয়াল গ্রামে।বাড়ীতে স্ত্রীকে নিয়ে তার বসবাস।তিন ছেলে তিন মেয়ে থাকলেও তাদের দেখেননা কেউ।মেয়েদের বিয়ে দেওয়ার পর তারা শ্বশুর বাড়ীতে আর ছেলেদের মধ্যে একজন তৃতীয় লিঙ্গের সে কোথায় থাকে জানেন না বাকী দুই ছেলে আলাদা থাকেন।সংসারের ঘানি তাকেই টানতে হয়।

তাই ঝড়-বৃষ্টি উপেক্ষা করে দীর্ঘ পথ মাড়িয়ে ছুটে চলতে হয় গ্রামের বিভিন্ন হাট-বাজারে।এই বয়সে তিনি দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।বয়স দমিয়ে রাখতে পারেনি তাকে।বর্তমানে তিনি আগের মত ভালোভাবে কাজ করতে পারেন না।এরপর ও থেমে নেই তার জীবন জীবিকার চাকা।
শামশুজ্জোহা বিদ্যুৎ,চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি