বাণিজ্যিতো ঠিকই আছে, তাহলে ক্রিকেট খেলতে কী সমস্যা? - Metronews24 বাণিজ্যিতো ঠিকই আছে, তাহলে ক্রিকেট খেলতে কী সমস্যা? - Metronews24

বাণিজ্যিতো ঠিকই আছে, তাহলে ক্রিকেট খেলতে কী সমস্যা?

shoaib akhtar,shoaib akhtar wife,shoaib akhtar stats,shoaib akhtar age,shoaib akhtar wife age,shoaib akhtar youtube

ক্রিকেটীয় আকর্ষণের দিক থেকে ভারত-পাকিস্তান সিরিজ সবসময় এগিয়ে। কিন্তু দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলতে কিছুতেই রাজি নয় ভারত।

২০১৩ সালের পর থেকে বহুবার আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে একে অন্যের মুখোমুখি হলেও দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলা হয়নি। আর ভারত-পাকিস্তান সর্বশেষ টেস্ট সিরিজ খেলেছিল সেই ২০০৮ সালে।

বিষয়টা নিয়ে অনেকবারই ক্ষোভ ঝেরেছেন সাবেক পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। তবে শোয়েব আখতারের যুক্তিটা একটু আলাদা। ‘রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস’র প্রশ্ন, দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্যিক সম্পর্ক ঠিকই আছে, তাহলে ক্রিকেট খেলতে কী সমস্যা?

শোয়েবের মতে, বিষয়টা মাথায় রেখে দুই দলের উচিত দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলা। যদি একে অন্যের মাটিতে না খেলতে চায়, তাহলে অন্তত নিরপেক্ষ ভেন্যুতে সিরিজ আয়োজন করা যায় বলেও মত তার।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে এক ভিডিও বার্তায় শোয়েব বলেন, ‘পাকিস্তান এখন অনেক নিরাপদ দেশ। ভারতের কাবাডি দল এসেছিল, তারা অনেক ভালোবাসা পেয়েছে।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলও এসেছিল। কিন্তু এরপরও যদি নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা থাকে তাহলে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলার পরামর্শ রইলো।’

এরপর দুই দেশের মধ্যকার বাণিজ্যিক সম্পর্কের দিকে ইঙ্গিত করে শোয়েব বলেন, ‘যদি আপনারা (ভারত) সম্পর্ক ছিন্ন করতে চান, তাহলে বাণিজ্য বন্ধ করুন, কাবাডি খেলা বন্ধ করুন, শুধু ক্রিকেট কেন? যখনই ক্রিকেটের প্রসঙ্গ আসে, আমরা এতে রাজনীতি টেনে আনি, এটা হতাশাজনক।

আরও পড়ুনঃ সড়ক দুর্ঘটনায় দুই সন্তানসহ দুই ভলিবল তারকার মর্মান্তিক মৃত্যু

আমরা পেঁয়াজ এবং টমেটো আমদানি-রপ্তানি করি, আমরা হাসিঠাট্টা করি, তাহলে আমরা ক্রিকেট কেন খেলতে পারব না?’

ভারত-পাকিস্তান সিরিজ আয়োজনের একটা উপায়ও বাতলে দিয়েছেন তিনি, ‘আমি বুঝতে পারি যে পাকিস্তান সফরে আসতে পারবে না ভারত, পাকিস্তানও ভারত সফরে যেতে পারবে না। কিন্তু আমরা নিরপেক্ষ ভেন্যুতে এশিয়া কাপ, চ্যাম্পিয়নস ট্রফি খেলতে যাই, তাহলে দ্বিপক্ষীয় সিরিজের ক্ষেত্রে অসুবিধা কোথায়?’

এদিকে, সম্প্রতি বিশ্বকাপে অংশ নিতে অ্যামেচার কাবাডি দলের পাকিস্তান সফরের কথা অস্বীকার করেছে ভারত। দেশটির ক্রীড়া মন্ত্রী কিরেন রিজিজু বলেন, ‘আমাদের অফিসিয়াল কাবাডি দল পাকিস্তান সফরে যায়নি।

আমরা জানি না কারা সেখানে (পাকিস্তানে) গিয়েছিল। কোনো আনঅফিসিয়াল দলের এভাবে কোথাও যাওয়া এবং ভারতের নাম সঙ্গী করে খেলায় অংশ নেওয়া ঠিক নয়। আমরা কোনো অফিসিয়াল দল পাঠাইনি।’