বাগেরহাটের চিতলমারীতে নির্বাচনোত্তর সংহিংসতায় যুবকের ওপর হামলা

chitalmari,Bagerhat

বাগেরহাটের চিতলমারীর হিজলা ইউনিয়নে নির্বাচনোত্তর সংহিংসতার জেরে ৩নং ওয়ার্ডের বিজয়ী ইউপি সদস্য নাইম খানের বিরুদ্ধে জিয়া শেখ (৩২) নামের এক যুবককের ওপর হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় ওই যুবককে উদ্ধার করে চিতলমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে।

স্থানীয়রা জানান, ২০ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে হিজলা ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য নাইম খানের প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থী হিসেবে জিয়া শেখের শশুর সবুর খান মোরগ প্রতীকে নির্বাচন করে পরাজিত হন। নির্বাচনে জয়ী হয়ে ইউপি সদস্য নাইম খান ১০-১২ জন লোক নিয়ে মঙ্গলবার বেলা ৩ টার দিকে জিয়া শেখের দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এ সময় জিয়া শেখ বাধা দিতে গেলে তার ওপরও হামলা চালানো হয়। স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চিতলমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করে।

ইউপি সদস্য নাইম খান বলেন, নির্বাচন নিয়ে ইতোপূর্বে জিয়া শেখ আমার লোকজনকে মারধর করেছে। তার জেরে জিয়া শেখের সাথে সামান্য কথা কাটা-কাটি হয়েছে। তার ওপর কোন হামলা করা হয়নি।

হিজলা ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান কাজী আবু শাহীন জানান, হামলার খবর শুনেই তিনি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লিটন কাজীকে নিয়ে জিয়া শেখকে হাসপাতালে দেখতে গিয়েছি। বিষয়টি উভয় পক্ষের মধ্যে আলোচনা সাপেক্ষে শান্তিপূর্ণভাবে মিমাংশা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে চিতলমারী থানার ওসি এ এইচ এম কামরুজ্জামান জানান, হামলার বিষয়ে মৌখিক অভিযোগ পেয়েছি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
সৈকত মন্ডল,বাগেরহাট প্রতিনিধি

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap