বাইডেনের অভিষেক অনুষ্ঠানে ট্রাম্পকে আমন্ত্রণ

Joe Biden invite Donald Trump

মার্কিন নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তার অভিষেক অনুষ্ঠানে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। বাইডেন জানান, আমি আশা করছি অভিষেক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন ট্রাম্প।

অভিষেক অনুষ্ঠানে ট্রাম্প উপস্থিত না থাকলে তার স্বৈরতান্ত্রিক মনোভাবের পরিচয় বেরিয়ে আসবে বলে মন্তব্য করেন বাইডেন।

এদিকে, সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প ফের নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ করেছেন। ট্রাম্পের অভিযোগ, মার্কিন নির্বাচনে এত বড় কারচুপি, এর আগে কখনো হয়নি। নির্বাচনী কর্মকর্তাদের সমালোচনা করে ট্রাম্পের বক্তব্য, কারচুপি আটকানোর জন্য কোনো ব্যবস্থাই নেয়নি তারা।

যদিও নিজের বক্তব্যের সপক্ষে এখনো পর্যন্ত কোনো প্রমাণ দিতে পারেননি ট্রাম্প। আদালতও ট্রাম্প এবং রিপাবলিকানদের অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছে।

দেশটির সুপ্রিম কোর্টেরও সমালোচনা করেন ট্রাম্প। তার প্রশ্ন, কেনো সুপ্রিম কোর্ট নির্বাচনী পদ্ধতিতে হস্তক্ষেপ করবে না?

সুপ্রিম কোর্টে দেওয়ার মতো তার হাতে যথেষ্ট তথ্য প্রমাণ আছে বলে সাক্ষাৎকারে দাবি করেন ট্রাম্প। বলেছেন, আগামী ৬ মাসেও তার মন বদলাবে না (নিজের হার স্বীকার)।

ট্রাম্পের সাক্ষাৎকারের পর বেশকিছু প্রশ্ন আলোচনায় উঠে এসেছে। যেভাবে তিনি আদালত ও সুপ্রিম কোর্টকে আক্রমণ করেছেন, তা আদৌ দেশের প্রেসিডেন্ট করতে পারেন কিনা, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন বিশেষজ্ঞরা।

তবে একই সঙ্গে রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের বক্তব্য, ট্রাম্প মুখে যাই বলুন, ক্ষমতা যে তিনি ছেড়ে দেবেন, তা মোটামুটি স্পষ্ট।

আরও পড়ুনঃ ম্যাকরনের বিরুদ্ধে আবারও এরদোয়ানের কড়া মন্তব্য

তবে যুক্তরাষ্ট্রে ক্ষমতা হস্তান্তর বা প্রেসিডেন্টের অভিষেকের অনুষ্ঠান আগেও প্রত্যাখ্যান করেছেন প্রেসিডেন্টরা। এর আগে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জন অ্যাডামস, জন কুইন্সি অ্যাডামস এবং অ্যান্ড্র– জনসন উত্তরসূরির অভিষেক অনুষ্ঠানে অংশ নেননি।