বন্যার্ত মানুষের পাশে পুলিশ ছিল এবং থাকবেঃবেনজীর আহমেদ আইজিপি

Lalmonirhat police IGP news

বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, মাত্র ১২ ঘণ্টার মধ্যে সিলেট-সুনামগঞ্জসহ দেশের অনেক জেলায় লাখ লাখ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। তাদের পাশে থাকতে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন। এই দুর্যোগ মোকাবিলা করতে পুলিশ বন্যার্ত মানুষদের পাশে ছিল, আছে এবং থাকবে।

বুধবার (২২ জুন) লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় দেশের প্রথম বাংলাদেশ পুলিশ জাদুঘরের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। আইজিপি বলেন, পৃথিবীতে অনেক দেশ আছে যাদের গর্ব করার মতো কিছুই নেই, বাংলাদেশে গর্ব করার মতো অনেক কিছু রয়েছে। আমরা বলতে পারি পদ্মা সেতু আমাদের সাহসিকতার একটি উদাহরণ।

পৃথিবীর দ্বিতীয় খরস্রোতা নদী পদ্মার ওপর সেতু করা কাল্পনিক বিষয় ছিল, যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরে বাস্তবায়ন হয়েছে। পদ্মা সেতু বিশ্বে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। তিনি বলেন, আমরা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ ও পতাকা পেয়েছি। স্বাধীনতার ৫০ বছর পর ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত দেশ পেয়েছি। করোনা না এলে এতদিনে ক্ষুধাকে জাদুঘরে রেখে দেওয়া হতো।

স্বাধীনতা-পরবর্তী বাংলাদেশকে দেখেছি, চৈত্র মাসে ভাত খাওয়ার কথা চিন্তাই করা যেত না। কচু-শাক খেয়ে দিন কাটাত মানুষ। সেই বাংলাদেশ এখন আর নেই। আমরা খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ, যা আজ বাস্তবায়ন হয়েছে।

এর আগে পুলিশ প্রধান বাংলাদেশ পুলিশ জাদুঘরের ফলক উন্মোচন করেন। পরে বাংলাদেশ পুলিশ জাদুঘর ও পুলিশ শিশুগ্যালারী পরিদর্শন করে হাতীবান্ধা থানা ভবনে গাছের একটি চারা রোপণ করেন। এ সময় তিনি পুলিশ নারী ব্যারাক ও পুলিশ লায়ন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজের উদ্বোধন করেন। পরে দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা পরিদর্শন শেষে পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক বিশেষ বৈঠক করে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন তিনি।

অনুষ্ঠানে লালমনিরহাট পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পুলিশের রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য। অনুষ্ঠানে রংপুর বিভাগের ৮ জেলার পুলিশ সুপারসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।
এস.বি-সুজন, লালমনিরহাট প্রতিনিধি

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap