বদলগাছীতে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের শিক্ষা বৃত্তি প্রদানে ঘুষ

নওগাঁ নিউজ

নওগাঁর বদলগাছীতে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা বৃত্তি, শিক্ষা উপকরণ ও বাইসাইকেল বিতরণে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ উঠেছে বঙ্গবন্ধু সরকারি মহাবিদ্যালয়ের অফিস সহকারির বিরুদ্ধে।
অফিস সহকারি মো.রাজু আহম্মেদ শ্যামল। সে মাস্টার রোলে কলেজে অফিস সহকারি পদে চাকুরি করেন।

তবে রাজু আহম্মেদ শ্যামল টাকা নেওয়ার কথা অস্বীকার করে বলেন, আমি কোনো টাকা নিইনি।

জানাযায়, গত ৯ মার্চ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় হতে সমতলের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে গৃহীত ‘‘বিশেষ এলাকার জন্য উন্নয়ন সহায়তা (পার্বত্য চট্টগ্রাম ব্যতীত)’’ শীর্ষক কর্মসূচির আওতায় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা বৃত্তি, শিক্ষা উপকরণ ও বাইসাইকেল বিতরণ করা হয়। প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও কলেজ পর্যায়ের ৫০ জনকে বাইসাইকেল, ৮১ জনকে শিক্ষা বৃত্তি ও ১১২ জনকে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করা হয়।

বঙ্গবন্ধু সরকারি মহাবিদ্যালয়ের ২২ জন ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর শিক্ষার্থীর মধ্যে ১৬ জন নয় হাজার ছয়শত টাকা করে শিক্ষাবৃত্তি ও ৬ জন শিক্ষার্থী একটি করে সাইকেল পায়।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শিক্ষা সহায়তার জন্য প্রথমে কলেজ থেকে শিক্ষার্থীদের লিখিত আবেদন করতে বলা হয়। শিক্ষার্থীরা আবেদন করলে আবেদনের সময় তাদের কাছ থেকে এক হাজার টাকা নেওয়া হয়। পরবর্তীতে যারা শিক্ষা সহায়তা পেয়েছে তাদের কাছ থেকে আবার ৫০০ টাকা নেওয়া হয়। টাকা নেওয়ার পরে তাদের কলেজে আসতে এবং কাউকে বলতেও নিষেধ করা হয়।

বঙ্গবন্ধু সরকারি মহাবিদ্যালয়ের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী সুব্রত বলেন, প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তার আবেদন করার সময় আমার কাছে ১৩০০ টাকা দাবি করে আমি এক হাজার টাকা দিয়েছি। টাকা পাওয়ার পর আবার ৫০০ টাকা আমার কাছ থেকে নেয় শ্যামল মামা।

তিতাস, স্মৃতি, রুবিনা জানায়, শিক্ষা বৃত্তির টাকা প্রদানের পর তাদের কাছ থেকে জোর করে ৫০০ টাকা নেয়।

বঙ্গবন্ধু সরকারি মহাবিদ্যালয়ের ভারপাপ্ত অধ্যক্ষ ফাল্গুনী রানী চক্রবর্তী বলেন, আমি এ বিষয়ে কিছু জানি না। তবে অভিযোগ সত্য হলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেব।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহা. আবু তাহির বলেন, আভিযোগ সত্য হলে কলেজ অধ্যক্ষর সাথে কথা বলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
রহমতউল্লাহ আশিকুর জামান নুর,নওগাঁ প্রতিনিধি