ফেল করানোর ভয় দেখিয়ে কয়েক দফায় ধর্ষণ,স্কুলছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা - Metronews24ফেল করানোর ভয় দেখিয়ে কয়েক দফায় ধর্ষণ,স্কুলছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা - Metronews24

ফেল করানোর ভয় দেখিয়ে কয়েক দফায় ধর্ষণ,স্কুলছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা

Repeated rape, schoolgirl gutted, for fear of failing

বরগুনার আমতলীতে ফেল করানোর ভয় দেখিয়ে ছাত্রীকে কয়েক দফায়  ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে শিক্ষকের বিরুদ্ধে।

এতে ওই ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে চিকিৎসার কথা বলে পটুয়াখালী নিয়ে গর্ভপাত করান ওই শিক্ষক। এই ঘটনায় ছাত্রীর দাদা মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন শিক্ষক।

জানা যায়, কাঠালিয়া তাজেম আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. জহিরুল ইসলাম ২০১৫ সালের ২২ জুলাই ঐ বিদ্যালয়ে যোগদান করেন।

বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে পরীক্ষায় ফেল করানোর ভয় দেখিয়ে গত ডিসেম্বর মাস থেকে কয়েক দফা ধর্ষণ করেন জহিরুল ইসলাম।

এতে ওই ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। বিষয়টি ওই ছাত্রী শিক্ষক জহিরুল ইসলামকে জানালে তিনি পেটে টিউমার হয়েছে বলে তাকে চিকিৎসার জন্য পটুয়াখালী নিয়ে গর্ভপাত করান।

আরও পড়ুনঃমোবাইলে গোপনে গোসলের ভিডিও ,লজ্জায় কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা

এ ঘটনা জানাজানি হলে জহিরুল ইসলামকে গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে শিক্ষার্থী-শিক্ষক ও অভিভাবকরা মানববন্ধন করে।

পরে গত ১ জুলাই ঐ ছাত্রীর দাদা বাদী হয়ে আমতলী থানায় জহিরুল ইসলামকে আসামি করে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল শনিবার সকাল ১০টার দিকে পুলিশ শিক্ষককে গ্রেফতার করে।

Comments
0