ফেক আইডি’র সেই তরুণীকেই বিয়ে করেছে ফুটবলার সোহেল রানা

shohel rana

ফেসবুকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠিয়ে প্রথমে ফুটবলার সোহেল রানার বন্ধু হন  সায়েদা তামিলা সিরাজী। প্রথম দিকে তামিলার সেই ফেসবুক আইডিটিকে ‘ফেক আইডি’ ভেবেছিলেন সোহেল রানা।

তবে তামিলার কাছ থেকে আসা মেসেজগুলো ঠিকই মনোযোগ দিয়ে পড়তেন তিনি। ফেসবুকে ছয় মাসের পরিচয় শেষে ধানমন্ডির এক রেস্তোরাঁয় তারা দেখা করেন।

প্রথম দেখাতেই তামিলাকে ভালো লেগে যায় সোহেলের। এরপরই প্রেম! ছয় বছরের প্রেম পূর্ণতা পেয়েছে বিয়ের মাধ্যমে। রবিবার দুপুরে ধানমন্ডির এক রেস্তোরাঁয় সোহেল ও তামিলার বিয়ে সম্পন্ন হয়।

জানা যায়, ঘটনাটি ২০১৫ সালের ৮ ফেব্রুয়ারির। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের ফাইনালে মালয়েশিয়ার মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। সেই ম্যাচে বাংলাদেশের হয়ে খেলেছিলেন মিডফিল্ডার সোহেল রানাও।

ম্যাচটি বাংলাদেশ হেরেছিল ২-৩ গোলে। সেদিন গ্যালারিতে ছিলেন সায়েদা তামিলা সিরাজী। সে ম্যাচে হারলেও তামিলার মন জয় করে নিয়েছিলেন সোহেল রানা।

সেদিনই প্রথম স্টেডিয়ামে বসে খেলা দেখেছিলেন তামিলা। মাঠের এতো এতো ফুটবলারের মধ্যে সোহেলের খেলা আলাদাভাবে ভালো লেগেছিল তার। পরে ফেসবুকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠিয়ে প্রথমে সোহেল রানার বন্ধু হন তামিলা। পরে গড়ে উঠে প্রেমের সম্পর্ক।

আরও পড়ুনঃ শাহীন আফ্রিদিকে মেয়ের জামাই বানাচ্ছে শহীদ আফ্রিদি

বিয়ের পর সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন সোহেল রানা। তিনি বলেন, “সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন। সব সময় এক সাথেই থাকতে চাই আমরা।”