ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্টকে প্রথমবার ফোন করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট

Joe Biden and Palestine President Mahmud Abbas

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণের পর প্রথমবারের মতো ফোন করেছেন ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসকে। শনিবার আব্বাসের মুখপাত্রের বরাত দিয়ে এ খবর নিশ্চিত করেছে আল-জাজিরা।

জো বাইডেন এমন সময় আব্বাসকে ফোন দিয়েছেন যখন গাজা উপত্যকায় বোমা হামলা অব্যাহত রেখেছে ইসরায়েল। এর আগে বাইডেন শুক্রবার ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাত নিরসনে দূত পাঠিয়েছেন।

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ‘ইসরায়েলের আত্মরক্ষার অধিকার আছে’ বলে সম্প্রতি যে মন্তব্য করেছেন তার তীব্র সমালোচনা করেছেন ফিলিস্তিনি বংশোদ্ভূত মার্কিন কংগ্রেসের প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্রেট দলীয় সদস্য রাশিদা তৈয়ব।
মার্কিন কংগ্রেসে একমাত্র ফিলিস্তিনি-আমেরিকান সদস্য রাশিদা তৈয়ব বৃহস্পতিবার প্রতিনিধি পরিষদে ফ্লোর নিয়ে নিজ দল থেকে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং অন্য নেতাদের তীব্র সমালোচনা করেন।

ফিলিস্তিন ইস্যুতে আমেরিকার একচোখা নীতির সমালোচনা করে তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট বাইডেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্লিঙ্কেন, জেনারেল অস্টিন ও উভয় দলের অন্য নেতাদের বিবৃতিগুলো পড়লে মনেই হবে না যে, ফিলিস্তিনিদের অস্তিত্ব আছে।
রাশিদা তৈয়ব বলেন, ফিলিস্তিনি পরিবারগুলোকে ঠিক এই মুহূর্তে হামলা চালিয়ে তাদের বাড়িঘর ছিন্নভিন্ন করে দেওয়া হচ্ছে, পরিবারগুলো ছিন্নভিন্ন হয়ে যাচ্ছে। অথচ তাদের কোনো স্বীকৃতি নেই।

মার্কিন কর্মকর্তাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনাদের বক্তব্যে শিশুদের আটক করা ও হত্যা করার বিষয়ের উল্লেখ নেই। মুসলিমদের অন্যতম পবিত্র স্থানে নামাজরত মুসুল্লিদের ওপর ইসরায়েলি পুলিশের অব্যাহত হয়রানি ও সন্ত্রাস সৃষ্টির বিষয়টি কোনোভাবেই স্বীকার করা হচ্ছে না।

নামাজ পড়ার সময় আল আকসা মসজিদ যে অব্যাহতভাবে সহিংসতা, কাঁদানে গ্যাস, ধোঁয়ায় ঢেকে ফেলা হচ্ছে, তার কোনো উল্লেখ নেই তাদের বিবৃতিতে। এসময় তিনি ফিলিস্তিনিরা বর্তমানে গাজা যুদ্ধে যে নিষ্ঠুরতার মুখোমুখি তা স্বীকার করে বিবৃতি দেওয়ার আহ্বান জানান।