প্রেমের ফাঁদে ফেলে স্কুলছাত্রীকে একাধিক বার ধর্ষণ

School rape multiple times by falling into the trap of love

জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলার সিধুলী ইউনিয়নের বীর দুধিয়া গাছা গ্রামে ৮ম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে (১৫) প্রেমের ফাঁদে ফেলে একাধিক বার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক কলেজছাত্রের বিরুদ্ধে ।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত সোহেল রানা (২২) নামে এক কলেজছাত্রকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বর্তমানে ওই স্কুলছাত্রী সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

এ ঘটনায় শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) ওই স্কুলছাত্রী বাদী হয়ে বালিজুড়ী ইউনিয়নের মির্জাপুর গ্রামের হাজি মোজাম্মেল হকের ছেলে কলেজছাত্র সোহেল রানা ও তার মামাতো ভাই স্বপনকে আসামি করে মাদারগঞ্জ থানায় মামলা করেন।

পুলিশ রাতেই সোহেলকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে। পরে রোববার (২৩ ফেব্রুয়ারি) তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

মাদারগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, কয়েক মাস আগে বীর দুধিয়া গাছা গ্রামে মামাতো বোনের বাড়িতে গিয়ে ওই স্কুলছাত্রীর সঙ্গে পরিচয় হয় সোহেল রানার।

সেই থেকে দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর বিয়ের প্রলোভন দিয়ে একাধিক বার ওই ছাত্রীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয় সোহেল রানা।

আরও পড়ুনঃ বিয়ের এক সপ্তাহ পরই নববধূ ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা!

এতে ওই স্কুলছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। বিষয়টি প্রকাশ পেলে সোহেল রানা অস্বীকার করে। এতে ওই স্কুলছাত্রী বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করে।

ওসি জানান, ধর্ষণের শিকার ওই স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য মেডিকেলে পাঠানো হবে।

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap