প্রেমিকের খায়েশ মেটাতে নাবালিকা মেয়েকে ধর্ষণে সাহায্য মায়ের!

Rape of 14-year-old girl

যেকোনো সন্তানের কাছে পৃথিবীর সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য মানুষটি হচ্ছে তার নিজের মা। কিন্তু সেই মা-ই ‌যদি সন্তানের সর্বনাশের কারণ হয়ে দাঁড়ায়‌?‌ শুনতে অবাক লাগলেও এমনই মর্মান্তিক এক ঘটনা ঘটেছে ভারতের চেন্নাইয়ে। যেখানে নিজের মেয়েকেই ধর্ষণ করতে প্রেমিককে সাহায্য করেছে এক নারী।

শুধু তাই নয়, এ কারণে গর্ভবতীও হয়ে পড়ে ১৪ বছর বয়সি নাবালিকা। সম্প্রতি সরকারি হোমে এক সন্তানের জন্মও দিয়েছে সে। ঘটনায় ২ অভিযুক্তকেই আটক করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, অভিযুক্ত নারীর কয়েক বছর আগেই ডিভোর্স হয়েছিল। পরে শেখর নামে পেশায় এক রঙ মিস্ত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়ায় ওই নারী। এরপর মাঝেমধ্যেই ওই নারীর সঙ্গে দেখা করতে আসত ওই ব্যক্তি।

কিন্তু তার মাঝেই তার ১৫ বছর বয়সি বড় মেয়েকে যৌন হেনস্তা করতে থাকে। এই বিষয়ে মা‌কে জানালেও, ওই নারী নিজের মেয়েকে বাঁচানোর পরিবর্তে মানিয়ে নিতে বলে। এরপর ওই ব্যক্তির কুকীর্তির পরিমাণও বাড়তে থাকে। এর মধ্যেই গর্ভবতী হয়ে পড়ে ওই নাবালিকা।

বিষয়টি জানতে পেরে মেয়েকে ভাইয়ের বাড়িতে রেখে আসে অভিযুক্ত নারী। পরে মেয়েটি তার মামাকে পুরো বিষয়টি জানায়। এরপর বোনের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেন অভিযুক্ত নারীর ভাই। শেষপর্যন্ত যোগাযোগ করতে না পেরে পুলিশের দ্বারস্থ হন। এরপরই নড়েচড়ে বসে পুলিশ।

আরও পড়ুনঃ ছেলের সিদ্ধান্ত পছন্দ হয়নি বরিস জনসনের বাবার,ফরাসি নাগরিকত্বের আবেদন

এ ঘটনায় দুজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়। আটক  করা হয় অভিযুক্তদের। এদিকে, ওই নাবালিকাকে একটি হোমে পাঠানো হয়। সেখানে এক সন্তানের জন্মও দেয় সে।

সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন