পাকিস্তানি তরুণকে অনলাইনে বিয়ে করলেন বাংলাদেশি তরুণী

A Bangladeshi girl married a Pakistani man online

জয়পুরহাটের মেয়ে মুরসালিন সাবরিনার সঙ্গে পাকিস্তানি যুবক মুহাম্মদ উমরের বিয়ের ঘটনাটি জেলা শহরে ব্যপক সাড়া ফেলে দিয়েছে। সাবরিনার বাবা ব্যাংক কর্মকর্তা মোজাফ্ফর হোসেন।

বাড়ি জয়পুরহাট পৌর শহরের কাশিয়াবাড়ী। এ বাড়িতেই বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অনলাইনে বর ও কনে পরস্পরকে ‘কবুল’ করেন। অনলাইনে বিয়েটি পড়িয়েছেন মাওলানা মোস্তাফিজুর রহমান।

সাবরিনা ২০১৮ সাল থেকে আমেরিকান অনলাইন বিশ্ববিদ্যালয় ‘ইউনিভার্সিটি অব দ্য পিপল’-এ কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ছেন। উমরও একই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র।

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদের নিজস্ব ওয়েবসাইট ‘ইয়েমার’-এর মাধ্যমে দুজনের পরিচয়। উমরের বাবা বিলাল আহমদ ফল ও সবজি ব্যবসায়ী। বাস করেন পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের মুলতান শহরের শাহ রুখনে আলম কলোনিতে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম অনলাইনে তাদের পরিচয় থেকে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ২০১৯ সালে তাদের এই প্রেমের সম্পর্ক জানতে পারে দুজনের অভিভাবকরা। বর ও কনে পক্ষের মধ্যে যোগাযোগ হলে উমরের বাবা বিলাল আহমদ প্রস্তাব দেন অনলাইনে বিয়ে হোক।

সম্মতি দিলেন সাবরিনার বাবা মোজাফ্ফর। বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টায় সাবরিনার বাড়িতে স্বজন ও প্রতিবেশীদের নিয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

মোজাফ্ফর হোসেন বলেন, মেয়ের সঙ্গে পাকিস্তানি ছেলের প্রেমের সম্পর্ক প্রথমে তিনি মেনে নিতে রাজি হননি। কিন্তু পরে পাত্রের পরিবারসংক্রান্ত খোঁজখবর নিয়ে খুব ভালো লেগেছে।

আরও পড়ুনঃটঙ্গীতে শিশু হত্যা-ধর্ষণের সিরিয়াল ধর্ষক বন্দুকযুদ্ধে নিহত

তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই জামাই এবং তার পরিবার বাংলাদেশে এসে অন্য আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করে মেয়েকে নিয়ে যাবেন।

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap