নড়াইলে মশার কয়েলের আগুন কেড়ে নিয়েছে শারীরিক প্রতিবন্ধির জীবন

lohagara narail

আগুনের লেলিহান শিখা নিভিয়ে দিয়েছে শারীরিক প্রতিবন্ধি মোঃ বাবর আলীর(৪০) জীবন। ঘরেই আগুনে দগ্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করতে হয়েছে তাকে। বাবর আলী জন্মগতভাবেই শারীরিক প্রতিবন্ধি ছিলেন। পা ও হাত ছিল অচল।

সামান্য কথা বলতে পারতেন। শুক্রবার(১৯ মার্চ) ভোর ৪টার দিকে লোহাগড়া পৌর এলাকার রামপুর গ্রামে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় বাকরুদ্ধ এলাকার সকলেই।

সূত্র জানায়, লোহাগড়া পৌরসভার রামপুর গ্রামের মৃত ফকির নায়েব আলীর ছেলে প্রতিবন্ধি মোঃ বাবর আলী ভাইবোনদের মধ্যে বড়। অন্য ভাইয়েরা সংসার দেখভাল করেন। একা টিনসেড ঘরে বসবাস করতেন প্রতিবন্ধি মোঃ বাবর আলী।

রাত ১০ টার দিকে ঘুমিয়ে পড়েন বাবর আলী। শুক্রবার(১৯ মার্চ) ভোর ৪টার দিকে ঘরে মশা তাড়াতে জ¦ালানো মশার কয়েল থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরিবারের সদস্যরাসহ গ্রামের লোকজন আগুনের বিষয়টি টের পাবার সাথে সাথে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন।

খবর পেয়ে লোহাগড়া উপজেলার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। কিন্তু ততক্ষণে শারীরিক প্রতিবন্ধি মোঃ বাবর আলীর বাঁচার আকুতি থাকলেও চলাচলে অক্ষম হওয়ায় ঘর থেকে বের হতে পারেননি। শরীরের ৯০ ভাগই আগুনে পুড়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

পরিবারের সদস্যরা শোকে মূর্ছা যাচ্ছেন। নিহত মোঃ বাবর আলীর ভাই মোঃ বাদলসহ অন্যরা জানান অগ্নিকান্ডে ভাইয়ের জীবণ গেছে। ঘরসহ আসবাবপত্র পুড়ে আর্থিক ক্ষতি হয়েছে প্রায় ৪/৫ লাখ টাকার।

লোহাগড়া উপজেলার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার মোঃ মাসুদ রানা বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়েছি। কিন্তু ততক্ষণে মোঃ বাবর আলীর মৃত্য হয়েছে। মশার কয়েল থেকে আগুনের সূত্রপাত।

লোহাগড়া থানার এস,আই মোঃ মাহফুজ জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়। তার মৃত্যু মর্মান্তিক।

ইকবাল হাসান,নড়াইল প্রতিনিধি