নোরাকে আপত্তিকর ভাবে স্পর্শের সেই ভাইরাল ভিডিও ভুয়া

Terence Lewis on fake video of him touching Nora Fatehi inappropriately

বলিউড অভিনেত্রী নোরা ফতেহি ও কোরিওগ্রাফার টেরেন্স লুইসের একটি ভিডিও সম্প্রতি নেট দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। একটি নাচের রিয়েলিটি শোয়ে দুজনে বিচারকের আসনে রয়েছেন। ভাইরাল সেই ভিডিওতে নোরাকে আপত্তিকর ভাবে স্পর্শ করতে দেখা যায় টেরেন্সকে।

এরপরই নেটিজেনদের রোষানলেন পড়েন তিনি। অবশেষে এই বিষয়ে মুখ খুললেন টেরেন্স। যে ভিডিওটি ভাইরাল হয় সেখানে দেখা যাচ্ছিল, নোরার নিতম্ব স্পর্শ করছেন টেরেন্স। এই ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই নেটিজেনরা আক্রমণ করেন টেরেন্সকে।

যদিও প্রতিক্রিয়া স্বরূপ কিছুই করেননি নোরা ফতেহি। তখনই প্রশ্ন ওঠে, তাহলে কি এই ভিডিও আসলেই কি সত্য, নাকি প্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে এমন একটি ভিডিও তৈরি করা হয়েছে। কারণ এভাবে কাউকে স্পর্শ করলে সঙ্গে সঙ্গে প্রতিক্রিয়া প্রকাশ পাওয়াই স্বাভাবিক।

টেরেন্স বলেন, সারা জীবনে তিনি বিপরীত লিঙ্গের থেকে যথেষ্ট ভালোবাসা পেয়েছেন। তাই নিজেকে কোনও কিছু থেকেই বঞ্চিত অনুভব করেন না। এই ধরনের জিনিস ১৭ বছর বয়সিদের উত্তেজিত করতে পারে। আমার বয়স ৪৫। টেরেন্স জানান, তিনি নোরাকে শ্রদ্ধা করেন।

তার দাবি, এমন কিছু সত্যি ঘটলে যে কোনও নারী সঙ্গে সঙ্গে প্রতিক্রিয়া দেবেন। কিন্তু এমন কিছুই ঘটেনি বলে তারা দুজনই প্রতিক্রিয়াহীন ছিলেন। কিছুদিন আগে ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্টের মাধ্যমেও নোরা ও টেরেন্স দুজনেই ঘটনাটি মিথ্যে বলে দাবি করেন।

আরও পড়ুনঃ ফেঁসে যাচ্ছেন রিয়া, মৃত্যুর আগে তাকে বাসায় পৌঁছে দেন সুশান্ত!

টেরেন্সের পোস্টে নোরা কমেন্ট করেছিলেন, ধন্যবাদ টেরেন্স। এখন ফটোশপ ও প্রযুক্তির মাধ্যমে বহু বিকৃতি ঘটানো যায়। আমার ভালো লাগছে যে তুমি বিষয়টা নিয়ে শান্ত থেকেছ।

তুমি এবং গীতা, দুজনকেই আমি শ্রদ্ধা করি। এই শোয়ের বিচারক হতে পেরে আমি খুশি। অনেক শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা পেয়েছি ও শিখেছি বহু কিছু। খুব ভালো থেক।