নবজাতকটিকে টেনেহেঁচড়ে বের করে আনে কুকুর!

Wounded newborn in Kamalnagar

লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে কুকুরের মুখ থাকে এক নবজাতকের ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। রাস্তায় পাশে কুকুরের টানাহেঁচড়ার সময় বিষয়টি সবার নজরে আসে। ওই নবজাতকের মাথা ছাড়া কোনো অংশ আর দেখা যাচ্ছে না। কে বা কারা শিশুটিকে রেখে গেছে সেটাও জানা যায়নি।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) সকাল ৯টার দিকে কুকুরের টানাহেঁচড়া দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। উপজেলার উত্তর চরলরেঞ্চ পূর্ব মুজিবনগর মতিরহাট-তোরাবগঞ্জ সড়কের পাশে ওড়না ও কম্বল মোড়ানো অবস্থায় নবজাতকের মরদেহটি পড়ে আছে।

তবে বেলা ১১টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত পুলিশ ঘটনাস্থল পৌঁছায়নি।

স্থানীয় সূত্র জানায়, একটি কালো ব্যাগ থেকে কম্বল, ওড়না ও লুঙ্গি মোড়ানো ওই নবজাতককে টেনেহেঁচড়ে বের করে আনে কুকুর। এটি দেখে স্থানীয়রা কাছে গিয়ে কুকুরটিকে তাড়িয়ে দেয়। কিন্তু তার আগেই নবজাতকের শরীর ক্ষতবিক্ষত হয়ে যায়।

চরলরেন্স ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম বলেন, একটি ব্যাগ থেকে কুকুর টেনেহেঁচড়ে নবজাতকের দেহটি বের করেছে। দূর থেকে এটি দেখে কাছে এসে কুকুরকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়। এরমধ্যেই শিশুটির পুরো দেহ ক্ষতবিক্ষত হয়। ঘটনাটি মর্মান্তিক।

আরও পড়ুনঃ রক্তাক্ত আনুশকাকে সোফায় শুইয়ে থাকতে দেখে দারোয়ান

মুঠোফোনে কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নুরুল আবছার বলেন, ঘটনাটি এখনও কেউ আমাদের জানায়নি। আমরা এ বিষয়ে খোঁজ নিচ্ছি।