নওগাঁয় স্বামীর সহযোগিতায় অভিনব কায়দায় স্ত্রীকে ধর্ষণ,আটক ২

girl

নওগাঁর সাপাহারে স্বামীর সহযোগিতায় এক কিশোরী বধূ (১৭) গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। মামলার পর অভিযুক্ত দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।

গ্রেফতার কৃতরা হলেন- উপজেলার করমুডাঙ্গা বলদিয়াঘাটের বাবলুর ছেলে সুমন ওরফে ভোগা (১৯) ও মৃত আব্দুস সালামের ছেলে আহাদ আলী (৩০)। মামলার এজাহারভুক্ত তিন নম্বর আসামি করমুডাঙ্গা চৌমুহনী গ্রামের খেরোর ছেলে গোধা (২৮) পলাতক রয়েছেন।

পুলিশ জানায়, গত ১৯ মে উপজেলার পাতাড়ী ইউনিয়নের করমুডাঙ্গা এলাকায় নিজ স্বামীর সহযোগিতায় এক কিশোরী বধূকে তিনজন মিলে ধর্ষণ করে। আসামিদের সঙ্গে তার স্বামীর রাজমিস্ত্রির কাজের সুবাদে পরিচয় হয়। এরই ধারাবাহিকতায় ঘটনার রাতে ওই কিশোরীর স্বামীকে টাকা দিয়ে তার সহযোগিতায় একটি বাড়ির রান্নাঘরে মেয়েটিকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে তারা । ধর্ষণের পর ওই কিশোরীকে ফেলে পালিয়ে যায় তারা। বিষয়টি জানতে পেরে ওই কিশোরীর মা থানায় তিনজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেন। এ ঘটনায় বুধবার (২৬ মে) এক নম্বর আসামি ভোগা ও বৃহস্পতিবার (২৭ মে) দুই নম্বর আসামি আহাদ আলীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ওসি তারেকুর রহমান সরকার জানান, তিনজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করা হয়েছে। এর মধ্যে দুইজনকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তিন নম্বর আসামি পলাতক রয়েছ। তাকে গ্রেফতারের প্রক্রিয়া চলছে।

রহমতউল্লাহ ,নওগাঁ প্রতিনিধি