নওগাঁয় ডলফিন চাইনিজ রেস্টুরেন্টের নৈশপ্রহরী খুন

Md Rahmatullah Ashike

নওগাঁ শহরের মুক্তির মোড় এলাকায় ডলফিন চাইনিজ রেস্টুরেন্টের নৈশপ্রহরী আতোয়ার রহমানকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করা হয়েছে।

শনিবার (২৯ মে) সকালে হোটেলের মেঝেতে রক্তাক্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার পর ডলফিন চাইনিজ রেস্টুরেন্টের বাবুর্চির সহকারী বাদল পলাতক রয়েছে।

নিহত আতোয়ার রহমানের বাড়ি জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার চক মোহিতুল গ্রামে। আতোয়ার ডলফিন চাইনিজ রেস্টুরেন্ট প্রতিষ্ঠার প্রায় ২৫ বছর ধরেই সেখানে কর্মরত ছিলেন। রাজশাহী সিআইডি ফরেন্সিক বিভাগের একটি দল এসে ঘটনাস্থল তদন্ত করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, যথারীতি নৈশপ্রহরী আতোয়ার ও বাবুর্চির সহকারী বাদল রাতে ওই চাইনিজ রেস্টুরেন্টে ছিল। আজ সকাল সাড়ে ৬টার দিকে বাবুর্চি সাইফুল ইসলাম এসে মেইন দরজা বন্ধ পেয়ে ধাক্কা দিতে থাকে। এতে কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে মালিককে খবর দেয়। অনেক খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে দরজার বাইরে চাবি পড়ে থাকতে দেখে চাবি দিয়ে দরজা খুলে ভিতরে প্রবেশ করে একটি কাপড়ের পুটলীর মধ্যে আতোয়ারের রক্তাক্ত লাশ দেখতে পাওয়া যায়। সাথে সাথে তারা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আতোয়ারের লাশ উদ্ধার করা হয়।

নওগাঁ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ নজরুল ইসলাম জুয়েল জানান, নৈশপ্রহরীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্যে নওগাঁ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।
ঘটনারপর থেকে পলাতকরেস্টুরেন্টের সহকারী বাবুচি বাদলকে আটকের অভিযান চলছে। বাদলকে আটক করা সম্ভব হলে তার মৃত্যুর প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন সম্ভব হবে আশা করা হচ্ছে।
রহমতউল্লাহ,নওগাঁ প্রতিনিধি