দুবাই থেকেই হোয়াটসঅ্যাপে স্ত্রীকে তিন তালাক - Metronews24দুবাই থেকেই হোয়াটসঅ্যাপে স্ত্রীকে তিন তালাক - Metronews24

দুবাই থেকেই হোয়াটসঅ্যাপে স্ত্রীকে তিন তালাক

Man gives triple talaq to wife in Shivamogga through Whatsapp from Dubai

ভারতে তিন তালাক আইন পরিপন্থী। সম্প্রতি এ সংক্রান্ত একটি বিল পাস হয়েছে দেশটিতে। কিন্তু আইন হলেও তিন তালাক প্রথা এখনও বন্ধ হয়নি।

সম্প্রতি ভারতের কর্নাটকের সিমোগার বাসিন্দা আয়েশাকে তিন তালাক দিয়েছেন তার স্বামী। তাও আবার দুবাই থেকে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমেই ওই ব্যক্তি তার স্ত্রীকে তালাক দিলেন।

বিচারের আশায় প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন আয়েশা।

গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমার স্বামী মুস্তাফা হোয়াটসঅ্যাপে ভয়েস মেসেজ পাঠিয়ে আমাকে তিন তালাক দিয়েছেন। কিন্তু আমি এই তালাক মানি না।

ইতোমধ্যেই স্বামীর নামে মামলা দায়ের করেছেন আয়েশা। তিনি বলেন, আমি বিচার চাই। তবে পুলিশ জানিয়েছেন, যেহেতু মুস্তাফা দুবাইয়ে থাকে, তাই তারা কিছু করতে পারবেন না।

আয়েশা জানিয়েছেন, তাদের বিয়ে হয়েছে ২১ বছর আগে। তিনি বলেন, ২১ বছর আগে আমাদের বিয়ে হয়েছে। কিন্তু বিয়ের পর আমার সন্তান হয়নি।

আরও পড়ুনঃ ভারতের তৈরি নয়া মিসাইলে পাকিস্তানের কপালে চিন্তার ভাঁজ

তবে এ ব্যাপারে মুস্তাফাও কখনই কিছু বলেনি। এমনকি আমরা একটি মেয়েকে দত্তক নিয়েছিলাম। ওর বয়স এখন ১৬ বছর। এখন হুট করেই আমার স্বামী আমাকে তালাক দিয়েছেন।

আয়েশা জানান, তার স্বামীর পরিবার খুবই প্রভাবশালী। আর তাই থানার বাইরেই মামলাটি মিটিয়ে দেওয়ার জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু আয়েশা চান মেয়ে এবং স্বামীকে নিয়ে একসঙ্গে থাকতে।

তিনি আরও জানান, তিনি বেশিদূর পড়াশোনা করেননি। তাই এই অবস্থায় চাকরি করে সংসার চালাতেও পারবেন না।

 

আর এতে তার মেয়ের পড়াশোনায় ক্ষতি হবে। তাই এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার জন্য প্রশাসনের সহায়তা চেয়েছেন তিনি।

সূত্র: আজকাল

Facebook Comments
0