থাপ্পড় নিয়ে অশ্লীল কথা বলে চরম বিতর্কে কঙ্গনা !

Kangana Ranaut reportedly in talks

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। প্রায়ই আলোচনা-সমালোচনার মধ্যে থাকেন এই নায়িকা। কখনও অভিনয় দিয়ে, আবার কখনও মন্তব্যের কারণে।

প্রায়ই তাকে নিয়ে হয় সংবাদ শিরোনাম। নেটদুনিয়ায় চলতে থাকে আলোচনা-সমালোনা।

এবার পুরুষে চড় মারা নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য করে আবারও বিতর্কের জন্ম দিলেন কঙ্গনা ও তার বোন রঙ্গোলি চান্দেল।

‘গালে চড় মারা বেঠিক আর নিতম্বে চড় মারা ঠিক? এটা কেমন। গালে চড় বেশি গুরুত্ব কেন পাবে?’ টুইটারে এই প্রশ্নের জেরে নতুন বিতর্ক তুলেছেন রঙ্গোলি চান্দেল। বোন কঙ্গনা রানাউতের এই মন্তব্য ফাঁস করেই রোষের মুখে পড়লেন তিনি।

টুইটারে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য সব সময়ই চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকেন কঙ্গনার বড় বোন তথা ম্যানেজার রঙ্গোলি চান্দেল।

হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, ঘটনার সূত্রপাত আন্তর্জাতিক নারী দিবসে রঙ্গোলির ‘থাপ্পড়’ কেন্দ্রিক এক টুইটকে ঘিরে।

তাপসী পান্নুর ওই ছবি সম্পর্কে বলেন, “আমার পার্টনার আমাকে চড় মারলে আমি সাময়িকভাবে তার থেকে দূরে চলে যাব, তাকে হয়তো বাড়ি থেকে বের করে দেব কিছু মাস বা বছরের জন্য। কিন্তু সারা জীবনের জন্য তাকে আমি ছেড়ে দেবো না যদি সে নিজের ভুল বুঝে ক্ষমা চায়।”

এরপর লেখেন, এই নিয়ে নাকি বোন কঙ্গনার সঙ্গেও আলোচনা করেছেন। তাতে কঙ্গনা জানিয়েছেন, “কেউ আমাকে চড় মারলে তাকে ধ্বংস করে দেবো। কিন্তু যদি কেউ তাকে নিতম্বে চড় মারে তাহলে সেটা ভালো লাগে!”

আরও পড়ুনঃ মুক্তির ৩ দিনেই কত আয় করল ‘বাঘি থ্রি’?

এরপর থেমে থাকেননি রঙ্গোলি। লেখেন, “বন্ধুরা আমি তোমাদের কাছে জানতে চাই গালে চড় মারা বেঠিক আর নিতম্বে চড় মারা ঠিক? এটা কেমন। গালে চড় বেশি গুরুত্ব কেন পাবে?”

রঙ্গোলির এই নিতম্বে চড় মারা শব্দটাই ভালোভাবে নেননি অনেকে। এক সংবাদমাধ্যম তো রঙ্গোলিকে খোলা চিঠি দিয়েছে।

তারা জানায়, অনুমতিটাই হলো শেষ কথা। মেয়েটি কোন বিষয়ে সহমত পোষণ করছে তার ওপরই নির্ভর করে কোনটা সঠিক আর কোনটা বেঠিক।

গোটা ঘটনাক্রম দেখে অবশেষে সোমবার ফের একাধিক টুইট করেন রঙ্গোলি। সেখানে জানান, বোনের সঙ্গে নিজের ব্যক্তিগত কথোপকথন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ফাঁস করায় কঙ্গনার রোষের মুখে পড়তে হয়েছে তাকে।

কঙ্গনা জানিয়েছে সে বোঝাতে চাইছিল পুরোটাই নির্ভর করে কোনও পুরুষের মনোভাবের ওপর, কোনটা সে জেনেবুঝে করেছে এবং কোনটা অজান্তে। কখনও কখনও একটা খারাপ দৃষ্টিও একটা সম্পর্ক ভেঙে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট।

এরপর একাধিক টুইটে সাংবাদিকদের ওপর ক্ষোভ ঝাড়েন রঙ্গোলি।

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap