রোহিতের স্ত্রীর সাথে কি কোহলির সর্ম্পক ছিল?

Rohit Sharma Better Than Virat Kohli

বিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মা, বর্তমানে দুজনই ভারতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম সুপারস্টার। তাদের ছাড়া ভারতীয় দল এখন কল্পনাই করা যায় না।

দলের প্রয়োজনে একে অন্যের সহযোদ্ধা হলেও বর্তমানে বিরাট কোহলি আর রোহিত শর্মার মাঝে সম্পর্ক একেবারেই ভালো নয়। বাইরে যতই ভাব-ভালোবাসা দেখা যাক না কেন, ভেতরে ভেতরে দুজনে একে অপরকে শত্রুই মনে করেন।

এতদিন জানা গেছে, ক্রিকেট বিষয়ক বিভিন্ন ঘটনা নিয়েই রোহিত-কোহলির এই দ্বন্দ্ব। কিন্তু ভারতীয় গণমাধ্যমে এবার উঠে এল ভিন্ন এক খবর। শুধু খবর নয়, রীতিমতো বোমা!
ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এশিয়ান এজের খবরে বলা হয়েছে, কোহলি ও রোহিতের স্ত্রীর মাঝে অতীতে সম্পর্ক ছিল!

দলের সহ-অধিনায়ক রোহিত শর্মার স্ত্রী ঋতিকা সাজদেহকে নিয়ে ২০১৩ সালে সিনেমা দেখতে গিয়েছিলেন কোহলি। শুধু এই প্রতিবেদন দিয়েই দায়িত্ব শেষ করেনি পত্রিকাটি, প্রমাণস্বরূপ একটি ছবিও যুক্ত করেছে।

ওই ছবিতে কোহলির সঙ্গে ক্যামেরাবন্দি মেয়েটির চেহারার সঙ্গে ঋতিকার চেহারারে বেশ মিল রয়েছে। বলা হচ্ছে, পুরনো সম্পর্কের কারণেই কি নতুন করে দুই তারকা ক্রিকেটারের মধ্যে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হল?

প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, ২০১০ সালে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে কোহলি-ঋতিকার পরিচয় হয়েছিল। এরপর ২০১৩ সালে ভারতের জিম্বাবুয়ে সফরের পর কোহলি ছুটি কাটাতে মুম্বাই গেলে সেখানে তাকে এক তরুণীর সঙ্গে সময় কাটাতে দেখা যায়।

ওই তরুণীই বর্তমানে রোহিতের স্ত্রী ঋতিকা সাজদেহ। ঋতিকা সে সময় স্পোর্টস ম্যানেজার হিসেবে কাজ করতেন। তাদের ওই সময় কাটানোর ছবি সে সময়কার শীর্ষস্থানীয় সংবাদমাধ্যম ডিএনএ নিউজে প্রকাশিত হয়েছিল।

ভারতের ক্রিকেটাঙ্গনে পরকীয়ার ঘটনা বিরল কোনও ব্যাপার নয়। এর আগে উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান দিনেশ কার্তিকের স্ত্রী নিকিতার সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েছিলেন তারই সতীর্থ মুরালি বিজয়। একপর্যায় তুমুল জমে ওঠে প্রেম।

আরও পড়ুনঃ ১০০ বলের ক্রিকেটে আরও ৬ টাইগার!

যার পরিণতি গড়ায় বিয়েতে। দিনেশকে ছেড়ে মুরালি বিজয়কে বিয়ে করেন নিকিতা। যদিও দিনেশ কার্তিক এরপর আবার বিয়ে করেছেন, তবে মুরালি বিজয়ের সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্ব চিরদিনের জন্য ভেঙে গেছে।

এদিকে, কোহলি-রোহিত দুজনেই এখন বিবাহিত। আনুশকা-কোহলি জুটি তো অনেকের কাছেই আইডল।

উল্লেখ্য, গত ওয়ানডে বিশ্বকাপে ভারতের ব্যর্থতার পরই প্রকাশ্যে চলে আসে কোহলি-রোহিতের দ্বন্দ্ব। কোহলির স্বেচ্ছাচারিতা, স্বজনপ্রীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছিলেন রোহিতসহ দলের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার। কোহলিকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার দাবিও উঠেছিল।

ভারতের ক্রিকেটাঙ্গনের একটা বড় অংশ চেয়েছিল, রোহিতকে তিন ফরম্যাটের ক্যাপ্টেন করা হোক। শেষ পর্যন্ত যদিও কিছুই হয়নি। ভারতীয় দলে শাস্ত্রী-কোহলি জুটিই রাজত্ব করে যাচ্ছে। অন্যদিকে ব্যাট হাতে মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন রোহিত শর্মা।

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap