ডুমুরিয়া থানা পুলিশের উদ্যোগে মাক্স বিতরণ

Dumuria Upazila

গ্রীষ্মের শুরু থেকে আবার বৃদ্ধি পাচ্ছে প্রাণঘাতী Covid 19 ভাইরাসে সংক্রমণের হার। কিছুদিন ধরেই দেশে এই ভাইরাস দ্বারা সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা উর্ধ্বমুখী। দেশ ও মানুষের এই সংকট মোকাবেলায় সবার প্রথমে প্রয়োজন সচেতনতা।

চলমান এই অতিমারী মোকাবেলায়, ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ, বাংলাদেশ, ড. বেনজীর আহমেদ, বিপিএম(বার) মহোদয়ের বলিষ্ঠ নেতৃত্বে, দেশব্যাপী করোনার বিরুদ্ধে “বিশেষ উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি” হাতে নিয়েছে বাংলাদেশ পুলিশ।

তারই অংশ হিসেবে ডুমুরিয়ার করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ধাপ মোকাবেলায় ‘মাস্ক পরার অভ্যেস, করোনা মুক্ত বাংলাদেশ’ শ্লোগান নিয়ে মাঠে নেমেছে ডুমুরিয়া থানা পুলিশ।

রবিবার (২১মার্চ) দুপুর ০৩টায় ডুমুরিয়া প্রাণকেন্দ্র শহরের খুলনা – সাতক্ষীরা হাই সড়ক, চুকনগর ট্রাফিক মোড়সহ গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলোতে প্রচারাভিযানে নামেন তারা।

এ সময় করোনা সংক্রমণ রোধে সকলকে চলাচল, ব্যবসা-বাণিজ্যসহ দৈনন্দিন কাজ কর্মে করোনা বিধি নিষেধ মানার আহবাণ জানানো হয় পুলিশের পক্ষ থেকে।

ডুমুরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ওবাইদুর রহমান। নেতৃত্বে অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তা ও পুলিশ সদস্যরা শহরের পথচারীদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করেন এবং মাস্ক বিহীন সকলকে মাস্ক পরিয়ে দেন।

বিকেলে শহরের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার ও বয়সের প্রায় ৫ শতাধিক মানুষের মুখে মাস্ক পরিয়ে দিয়ে সকলকে মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করারও আহবাণ জানান থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ওবাইদুর রহমান।

আরও পড়ুনঃ গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কর্তৃক জন-সচনেতা বৃদ্ধি ও মাস্ক বিতরণ

উপস্থিত পথচারীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, দ্বিতীয় ধাপের করোনা প্রকোপ থেকে রক্ষা পেতে হলে সকলকে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। সেই সাথে স্বাস্থ্য বিধিও মেনে চলতে হবে।

তিনি আরো বলেন, এখন মাস্ক দেয়া হচ্ছে, সচেতন করা হচ্ছে এরপরও যদি মাস্কের ব্যবহার ও সচেতনতা লক্ষ্য করা না যায় তাহলে কিন্তু শাস্তি এবং জরিমানার আওতায় আনা হবে।

এম এম টিপু সুলতান, খুলনা জেলা প্রতিনিধি