ডাকাতির পর স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ

the schoolgirl was picked up and gang-raped

কুড়িগ্রামের ডাকাতির পর বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনার ৩ আসামীকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার (৮ আগস্ট) তাদের বিভিন্ন এলাকা থেকে আটক করা হয়।

কুড়িগ্রামের রাজারহাটের ছিনাই ইউনিয়নের মহিধর খন্ডক্ষেত্র গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আটককৃতরা হলেন রাজারহাট উপজেলার ছিনাই গ্রামের উমর আলীর ছেলে আব্দুস সালাম (২৫), পীরমামুদ গ্রামের মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে আবুল কালাম (৩২) ও লালমনিরহাট জেলার মহেন্দ্রনগর এলাকার করিমের ছেলে আব্দুল মালেক (২৭)।

আজ রোববার পুলিশ সুপারের সভাকক্ষে প্রেস ব্রিফিংএ এ তথ্য জানান পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান। ব্রিফিংএ  তিনি বলেন, ৩ আসামী ডাকাতির উদ্দেশ্যে গিয়ে ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটিয়েছে। আসামীদের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে।

গত ২৭ জুলাই গভীর রাতে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ছুরিকাঘাত করে আহত করে এবং বাড়ির পাশে ধর্ষণ করে কয়েকজন। দুর্বৃত্তদের হামলায় ছাত্রীর বাবা ও মা গুরুতর আহত হন।

আরও পড়ুনঃ আটকে রেখে ৩ কিশোরীকে রাতভর ধর্ষণ

এসময় স্বর্ণালংকার ও এক লাখ ৬০ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায় তারা। পরদিন অজ্ঞাত ৩ জনকে আসামী করে রাজারহাট থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap