টাকার অভাবে কলেজে ভর্তি হতে না পেরে তরুণীর আত্মহত্যা

admission in the college due to lack of money

ঢাকার ধামরাইয়ে টাকার অভাবে কলেজে ভর্তি হতে না পেরে সানজিদা আক্তার নামে এক শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে।

রোববার সন্ধ্যায় উপজেলার নান্নার ইউনিয়নে পাঁচাল গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে ওই শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

নিহত সানজিদা আক্তার (১৭) ধামরাই উপজেলার নান্নার ইউনিয়নের পাঁচাল গ্রামের জালাল উদ্দিনের মেয়ে এবং স্থানীয় জলসিং এলোকেশী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম বলেন, হতদরিদ্র ৪ বোনের পরিবারে সানজিদা ছিল খুবই মেধাবী শিক্ষার্থী। সদস্য বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি পাস করে কলেজে ভর্তির অপেক্ষায় ছিল সে।

রোববার ধামরাই সরকারি কলেজে ভর্তির কথা ছিল তার। কিন্তু ভর্তি ফির নির্ধারিত টাকা জোগাড় না হওয়ায় মায়ের সঙ্গে মনমালিন্য হয় সানজিদার।

পরে বিকেলে কৃষক বাবা বাড়িতে ফিরে মেয়েকে খোঁজ করেন। এ সময় সানজিদার কক্ষের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ পেয়ে অনেক ডাকাডাকির পরও সাড়া মেলেনি।

পরে দরজা ভেঙে আড়ার সঙ্গে ওড়না পেঁচানো অবস্থায় ওই শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

আরও পড়ুনঃবাংলাদেশে করোনাভাইরাস এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণ পর্যায়েঃ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

এ ব্যাপারে ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) তন্ময় জানান, কোনো অভিযোগ না থাকায় প্রাথমিক সুরতহাল শেষে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।