টঙ্গীতে অন্ত:সত্ত্বা নারীর উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় শুক্কুর আলী গ্রেফতার

Tongi Sukkur Arrest

গাজীপুরের টঙ্গীতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে অন্ত:সত্ত্বা নারীর উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় শুক্কুর আলীকে (৩২) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্কুর আলী ও তার সহযোগীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে স্থানীয় এলাকাবাসী। থানায় মামলা শেষে গ্রেফতারকৃতকে শনিবার জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

শুক্কুরের গ্রেফতারের খবরে এলাকাবাসীর মধ্যে স্বস্তি ফিরে আসে। এলাকাবাসী ও মামলা সূত্রে জানা যায়, শুক্কুর আলী টঙ্গী পূর্ব থানা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী।

এলাকার ঝুট ব্যবসা ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে স্থানীয় ৫৬ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সদস্য সচিব রাসেদ চৌধুরী ও যুবলীগ নেতা ইমরান তালুকদার বশিরের সাথে তার দীর্ঘদিন যাবৎ বিরোধ চলছিলো। এরই জের ধরে শুক্রবার শুক্কুর আলী’র নেতৃত্বে মহিন, সাইফুল, মমিন মিয়া, সাইফুল ইসলাম, রাসেলসহ অজ্ঞাতনামা ৫-৬ জনের একদল যুবক রাসেদ চৌধুরীর বাড়িতে হামলা চালায়। তারা রাসেদ চৌধুরীকে বাড়িতে না পেয়ে তার ৫ মাসের অন্ত:সত্ত্বা স্ত্রী শিরিন আক্তার মুন্নিকে বেধড়ক পিটিয়ে ও পেটে লাথি মেরে গুরুতর আহত করে। এ সময় সাজ্জাদ নামে এক যুবক বাধা দিলে তাকেও পিটিয়ে আহত করে তারা। এসময় হামলাকারীরা বাড়ি থেকে নগদ ৩০ হাজার টাকা ও ৪ ভরি স্বর্নালংকার লুটে নেয়। পরে আশপাশের লোকজন এসে গুরতর আহত মুন্নিকে উদ্ধার করে টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে হামলার একটি সিসি টিভির ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি হয়। ঘটনার দিন রাতে এলাকাবাসী শুক্কুর ও তার সহযোগীদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করে। যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপির বাস ভবনের সামনে যায়। বিক্ষোভকারীরা প্রতিমন্ত্রীর কাছ থেকে সুষ্ঠ বিচারের আস্বাস পেয়ে বাসায় ফেরার পথে নতুন বাজার এলাকায় হামলা চালিয়ে বেশ কয়েকটি দোকান ও স্থাপনাসহ শুক্কুরের অফিস ভাংচুর করে এবং এলোপাথারী গুলি বর্ষন করে শুক্কুরকে খুঁজতে থাকে বলে শুক্কুরের পরিবার দাবী করেন। এসময় উভয় পক্ষের শাওন (৩৫) ও শুক্কুর আলী (৩২) আহত হয়। এঘটনায় রাত ১১ টার দিকে রাসেদ চৌধুরী বাদি হয়ে টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ রাতেই অভিযুক্ত শুক্কুরকে টঙ্গীস্থ শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালের মাঠ থেকে গ্রেফতার করে। গত ২৫ নভেম্বরেও জনৈক রুবেল তালুকদার বাদী হয়ে শুক্কুরের বিরুদ্ধে একটি চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করেন। অপরদিকে উজ্জল, মহিন ও সাইফুল নামে তিন ব্যক্তি পৃথকভাবে তাদের বাড়িঘর ভাংচুর ও হুমকি সংক্রান্ত প্রতিপক্ষ বশিরদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে বলেও জানা গেছে। এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ মো. জাবেদ মাসুদ বলেন, গ্রেফতারকৃতের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা হয়েছে। গতকাল রোববার দুপুরে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করে তাকে গাজীপুর আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মৃণাল চৌধুরী সৈকত, টঙ্গী

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap