ছুটিতে এসে স্ত্রী-সন্তানসহ নিখোঁজ সেনা সদস্য

Missing army member, including wife and children, on leave

ছুটিতে এসে হৃদয় (৩১) নামে এক সেনা সদস্য স্ত্রী-সন্তানসহ নিখোঁজ । এ ঘটনায় তার ছোট ভাই রানা মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) রাতে শাজাহানপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

নিখোঁজ হৃদয়ের বাড়ি বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার আমরুল ইউনিয়নের পরানবাড়িয়া গ্রামে। বাবার নাম মৃত নুরুজ্জামান। ছোটভাই রানা জানান, প্রায় ১২ বছর আগে হৃদয় সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। বর্তমানে তিনি যশোর ক্যান্টনমেন্টে কর্মরত আছেন।

গত ৬ অক্টোবর ১০ দিনের ছুটিতে বাড়িতে আসেন। ১০ অক্টোবর দুপুরে তিনি স্ত্রী ও ৬ বছরে ছেলেকে নিয়ে উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নের বামুনীয়া খিয়ারপাড়ায় শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে যান।

পরদিন তার শ্বশুর রবিউল ইসলাম তাদের বাড়িতে এসে হৃদয়ের ঘর থেকে জামাকাপড় ও একটি এলইডি টিভিসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ভ্যানে বোঝাই করে নিয়ে ঘরে তালা লাগিয়ে দিয়ে যান। পরে হৃদয়ের সঙ্গে মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়।

তিনি আরও জানান, এরপর ১৮ অক্টোবর যশোর ক্যান্টনমেন্ট থেকে সেনা সদস্যরা বাড়িতে এসে হৃদয়ের খোঁজ করেন এবং বলেন তাকে কোথায় লুকিয়ে রেখেছো, বের করে দাও।

তখন হৃদয়ের শ্বশুরবাড়িতে খোঁজ নিয়ে জানা যায় সেখানেও তারা নেই। শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে জিজ্ঞাসা করলে তারাও কিছু জানেন না বলে জানান। এরপর থেকে হৃদয়, তার স্ত্রী-সন্তানসহ নিখোঁজ রয়েছেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদ টুকু জানান, হৃদয় ঋণগ্রস্ত ছিলেন। তিনি বিভিন্ন জনের কাছ থেকে প্রায় ২০ লাখ টাকা ঋণ নিয়েছেন। তার একটি গরুর খামার ছিল। খুরা রোগে একটি গরু মারা গেলে বাকি ৭-৮টি গরু পানির দামে বিক্রি করে দেন।

আরও পড়ুনঃ গাছ কেটে ভাইরাল হওয়া সেই নারী আটক(ভিডিও)

এতে করে অনেক টাকা ঋণগ্রস্ত হন হৃদয়। সেই টাকার জন্য তিনি গা ঢাকা দিয়ে থাকতে পারেন। তাছাড়া শ্বশুরবাড়ির লোকজনের সঙ্গে হৃদয়ের যোগাযোগ থাকতে পারে। কিন্তু তারা অস্বীকার করছেন।

হৃদয়ের শ্বাশুড়ি বিলকিছ বেগম জানান, ১০ অক্টোবর দুপুরে মেয়ে ও জামাই তার বাড়িতে আসে এবং ওইদিন সন্ধায় খাওয়া-দাওয়া শেষে আবার বাড়িতে চলে যায়। ফোন বন্ধ থাকায় মেয়ে-জামাইয়ের সঙ্গে যোগাযোগ সম্ভব হচ্ছে না।

তাদের খোঁজ না পেয়ে তারাও থানায় জিডি করেছেন। তাছাড়া জামাইয়ের বাড়ি থেকে জামাকাপড়, এলইডি টিভি নিয়ে আসা হয়নি, শুধুমাত্র ভ্যানে করে খড় নিয়ে আসা হয়েছে।

এ বিষয়ে শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিম উদ্দীনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, নিখোঁজ সেনা সদস্যের খোঁজ পেতে সর্বোচ্চ চেষ্টা চলছে।

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap