ছাত্রীকে চলন্ত বাসে যৌন হয়রানি - Metronews24ছাত্রীকে চলন্ত বাসে যৌন হয়রানি - Metronews24

ছাত্রীকে চলন্ত বাসে যৌন হয়রানি

Sexual harassment of a student on a moving bus

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ছাত্রীকে চলন্ত বাসে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। বুধবার দুপুরে কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রামগামী একটি বাসে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, বাড়ি থেকে চট্টগ্রাম শহরে যাওয়ার উদ্দেশে পটিয়া থেকে একটি বাসে উঠেন মার্কেটিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী। পরে বাসটি শহরের চান্দগাঁও এলাকায় পৌঁছালে বাসের দুই সহকারীর সঙ্গে অনেকক্ষণ টানাহেঁচড়ার পর এই ছাত্রী বাস থেকে নেমে পড়েন।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী ছাত্রী ঘটনার বর্ণনা দিয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, পটিয়া থেকে চট্টগ্রামে ফেরার জন্য পটিয়ার মুন্সেফবাজার এলাকা থেকে একটি বাসে উঠেন তিনি। বাসের দুই সহকারীর মধ্যে একজন ভাড়া নিতে এসে তার কাছে জানতে চান কোথায় নামবেন তিনি।

উত্তরে চট্টগ্রাম শহরের দুই নম্বর গেইট নামার কথা বলেন ওই ছাত্রী। ‘কথোপকথনের এক পর্যায়ে সহকারীকে আমি জিজ্ঞেস করি, দুই নম্বর গেইট যেতে বাস থেকে কোথায় নামলে সুবিধা হবে। সহকারী বাস টার্মিনাল নামার পরামর্শ দেন আমাকে।

বাস টার্মিনাল এসে যাত্রীদের সঙ্গে আমিও নামতে চাইলে সহকারী এগিয়ে এসে আমাকে দুই নম্বর গেইট পৌঁছে দেওয়ার কথা বলেন। তবে বাস চালক ও সহকারীদের তাকানো আমার কাছে সন্দেহজনক মনে হয়।’

তিনি বলেন, এক পর্যায়ে দুই সহকারীর সঙ্গে ধস্তাধস্তি শুরু হয় আমার। আমি চিৎকার করে তাদের কাছ থেকে নিজেকে বাঁচাতে চেষ্টা করছিলাম।

আরও পড়ুনঃ চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ,প্রচুর রক্তক্ষরণ

রাস্তার কিছু মানুষ হয়তো বিষয়টি খেয়াল করছিলেন, তাই আমাকে পরে বাস থেকে নামিয়ে দেওয়া হয়। তবে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত থাকায় বাসের নম্বর দেখতে ভুলে গিয়েছিলাম।

চান্দগাঁও থানা সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী ছাত্রী থানায় এসে এখনও অভিযোগ করেননি। তার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হচ্ছে। তার সহায়তা পেলে অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেফতারে পুলিশ অভিযানে নামবে।

এ ব্যাপারে চবি প্রক্টর অধ্যাপক এসএম মনিরুল হাসান গণমাধ্যমকে বলেন, বিষয়টি শোনার পর আমরা ভুক্তভোগী ওই ছাত্রীর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করছি। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে।

Facebook Comments
0