চালে পোকা ধরেছে? দূর করার উপায় জেনে নিন

Heat increases insects

যেহেতু প্রায় প্রতিবেলায়ই আমাদের বাড়িতে ভাত রান্না হয়, তাই অন্যান্য খাবারের চেয়ে চালের পরিমাণটা একটু বেশিই লাগে সব পরিবারে।

আর প্রতিদিন চাল কিনে আনা নিশ্চয়ই সম্ভব নয়? তাইতো একসঙ্গে এক কিংবা একাধিক মণ চাল কিনে রাখার অভ্যাস প্রায় সব বাড়িতেই।

বেশির ভাগ সময় আমরা সময় স্বল্পতার কারনে বস্তা ভরা চাল কিনে থাকি। আর সব চাল একসাথে রাখার ফলে অনেক সময় চালে পোকা ধরতে দেখা যায় আর চালে পোকা ধরলে বেশ বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে হয়।

সমস্যাটি হলো চালের পোকা নিয়ে। চাল একটু পুরনো হতে শুরু করলেই পোকা হতে শুরু করে।

ভাত রান্নার আগে সেই চাল যতই ধোয়া হোক না কেন, চোখ ফাঁকি দিয়ে দু-একটি ঠিকই থেকে যায়। এটি যেমন বিরক্তিকর তেমনই অসহ্যকর।

তাহলে আর দেরি কেন আসুন শিখে নেওয়া যাক চালের পোকা তাড়ানোর পদ্ধতি-

চালের পরিমাণ অনেক হলে প্লাস্টিকের ব্যাগে ভরে রাখুন। এতে চাল অনেক দিন ভালো থাকবে।

চাল সংরক্ষণ করার জন্য অবশ্যই এয়ারটাইট ফুড কন্টেইনার ব্যবহার করবেন। এতে চালে পোকা ধরার ভয় যেমন থাকে না, চালটা স্যাঁতস্যাঁতেও হয় না।

আরও পড়ুনঃ যেভাবে তৈরি করবেন নারিকেলের সন্দেশ 

চালের যদি পোকা ধরেই যায়, তাহলে চালের পাত্রে কয়েকটি নিম পাতা বা তেজপাতা রেখে দিতে দিন। দেখবেন চালের পোকা পালিয়েছে। চালে পোকা না ধরলেও রাখতে পারেন। তাতে পোকা ধরার ভয় থাকে না।

চালে পোকা ধরলে কৌটা ভর্তি করে চাল ফ্রিজে রেখে দিন। ফ্রিজে ৪-৫ দিন রাখার পর দেখবেন চালের সব পোকা মরে গেছে।

অনেকেই চালের পোকা ধরলে রোদে শুকোতে দেন। এতে পোকা মরে যায় ঠিকই, কিন্তু সেই চালে আর ভালো ভাত হয় না। তাই সরাসরি চাল রোদে না রেখে, কৌটাশুদ্ধ রেখে দিতে পারেন। রোদের তাপে পোকা মরে যাবে।

যে জায়গায় চাল রাখছেন, সেই জায়গাটি নিয়মিত পরিষ্কার করুন। চাল রাখার পাত্রটি কিছুদিন পরপর পরিষ্কার করে নিন।

চালের কৌটোর আশপাশে কীটনাশক স্প্রে করে দিন। তাহলে আর চালে পোকা ধরার ভয় থাকবে না।

0 Shares
  • 0 Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Mix
  • Email
  • Print
  • Copy Link
  • More Networks
Copy link
Powered by Social Snap